image

আজ, বুধবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২০ ,


প্লাস্টিক ফুলের সয়লাবে কদর কমেছে কাঁচা ফুলের

প্লাস্টিক ফুলের সয়লাবে কদর কমেছে কাঁচা ফুলের

ছবি : সিভয়েস

এক সময় পাইকার ব্যবসায়ীরা লাইন ধরত কাঁচা ফুল কেনার জন্য। এখন আর সেদিন নেই। বাজার এখন প্লাস্টিক ফুলে সয়লাব। বিয়ে জন্মদিন সভা সব অনুষ্ঠানে শোভা পাচ্ছে প্লাষ্টিক ফুল। গত তিন বছর ধরে মার্কেটে প্লাষ্টিকের তৈরি ফুল বাজরে সয়লাব হ্ওয়ার পর আস্তে আস্তে ঝিমিয়ে পড়ছে কাঁচা ফুল। শুধু গোলাপই নয় গাঁদা রজনিগন্ধাসহ সব ফুলেরই কদর কমছে দিনের পর দিন। চাষিরাও আগ্রহ হারাচ্ছে ফুল চাষে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, ১৭/১৮ সালেও যেখানে গোলাপ ৫হেক্টর, গাঁদা ১০হেক্টর জমিতে চাষাবাদ হলেও বর্তমানে তা কমে ২০শতাংশে নেমে এসেছে। গুমানমর্দন, নাঙ্গলমোড়া, এনায়েতপুর, আলমপুরসহ image বিভিন্ন এলাকায় ফুল চাষ হলেও এখন দু এক জায়গায় হচ্ছে মাত্র। ফুল চাষের জন্য অধিক উপযোগি হলেও ফুলের কদর না থাকায় চাষাবাদ কমে গেছে।

চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার সবচেয়ে বড় গোলাপ চাষি আলমপুর এলাকার ডাঃ আবুল খায়ের বলেন, চার একর কমে মাত্র ১.৫ একরে নেমে এসেছে গোলাপ চাষ। আগে একশ’ গোলাপ নিম্নে চার টাকা ছিল। হাটহাজারীতে চাহিদা মিটিয়ে চলে যেত নগরসহ বিভিন্ন জেলা উপজেলায়। গত তিন বছর ধরে মার্কেটে প্লাষ্টিকের তৈরী ফুল বাজারজাতকরণের ফলে আস্তে আস্তে ঝিমিয়ে পড়ছে আসল ফুল। শুধু গোলাপ নয় গাঁদা রজনিগন্ধাসহ সব ফুলেরই কদর চলে যাচ্ছে।

বর্তমানে চকরিয়ার বড়ইতল এলাকার চাষিরা নগরে পাইকার হিসেবে ফুল দিলেও বাজারটি একসময় হাটহাজারীর ছিল।

যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার পানিসারা গ্রামে ১৯৮৩-৮৪ সালে প্রথম শের আলী নামের একজন কৃষক ভারত থেকে শিখে এসে বাণিজ্যিকভিত্তিতে ফুল চাষ শুরু করেন। পরবর্তী সময় তাঁর দেখাদেখি হাজার হাজার কৃষক ফুল চাষে এগিয়ে আসে। বাংলাদেশ ফ্লাওয়ার সোসাইটি সূত্রে জানা যায়, বর্তমানে শার্শা, ঝিকরগাছা উপজেলার ৭৬টি গ্রামের দেড় হাজার হেক্টর জমিতে ফুল চাষ হচ্ছে। ছয় হাজার তালিকাভুক্ত কৃষক এই ফুল চাষের সঙ্গে যুক্ত। আর ফুল কেনা-বেচার সঙ্গে যুক্ত দুই লাখ মানুষ। চাষিরা উন্নতমানের গোলাপ, রজনীগন্ধা, জারবেরা ও গ্লাডিওলাস ফুল উৎপাদন করেন। গদখালী এলাকার ফুলই ঢাকা, চট্টগ্রামসহ দেশের প্রায় সব জেলায় বিক্রি হয়।
সত্যতা স্বীকার করে কৃষি কর্মকর্তা শেখ আব্দুল্লাহ ওয়াহেদ বলেন, অনেক ফুল চাষি ফুল চাষের মাধ্যমে স্বাবলম্বী। প্লাষ্টিক ফুলের আনাগোনায় ব্যবসা মন্দা হওয়ায় চাষ বন্ধ হওয়ার উপক্রম। সরকার উদ্যোগি না হলে হয়ত প্লাষ্টিক ফুলের ভিড়ে হারিয়ে যাবে গোলাপ, গাঁদাসহ অসংখ্য ফুল।

গোলাপ চাষি আব্দুল লতিফ বলেন, এক সময় গোলাপ বিক্রি করে দৈনিক ৪/৫ হাজার টাকা আয় করতাম। কিন্তু বর্তমানে পেশা পরিবর্তন না করলেও আগের মত সে আয় নেই ফুল চাষিদের। তিন চার বছর আগেও চার একর জায়গার উপর গোলাপ চাষ হত। কাজের জন্য ছিল ৮জন শ্রমিক। দেখাশুনায় সারাদিনটা কেটে যেত। এখন ভাল চাষ হলেও বিক্রির জন্য বেশ কয়েকজন পাইকারকে ফোন দিতে হয়। কে একটু বেশি দাম দিবে। কারণ প্লাষ্টিক ফুলের রাজত্ব দেশ জুড়ে। অনেকে এ পেশা বাদ দিয়ে অন্য পেশায় জড়িয়েছেন নিজেকে।

সম্প্রতি ঢাকা ও চট্টগ্রামের কয়েকটি ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট প্রতিষ্ঠান চায়না, থাইল্যান্ড থেকে কাগজ ও প্লাস্টিকের ফুল এনে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে ব্যবহার করছে। দেশজুড়ে বিভিন্ন বিপণিবিতানে প্লাস্টিকের ফুল বিক্রিও হচ্ছে। এছাড়া্ও ফুলের পাশাপাশি কদর বাড়ছে মুশরির। বিয়ে, জন্মদিনসহ অন্যান্য অনুষ্ঠানে মুশরির কদর তুলনামূলক হারে বেশি। পাশাপাশি রয়েছে ককসিট সামগ্রী।সহসা এই কৃত্রিম ফুলের বাজারজাত বন্ধ না হলে ফুল ব্যবসায় বিপর্যয় হতে পারে।

-সিভয়েস/এসসি

আরও পড়ুন

সহজে মিলছে এন্টিবায়োটিক, বাড়ছে ঝুঁকি, সীমাবদ্ধ নজরদারি

প্রেসক্রিপশন ছাড়া ওষুধ বিক্রির ব্যাপারে সরকারের নীতিমালা থাকলেও, উপযুক্ত বিস্তারিত

দিনে কর্ম কমিশনের অফিস সহায়ক, রাতে দোকানি, তাও মূল ফটকের সামনে!

নগরের চকবাজার থানা এলাকায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (চমেক) পূর্ব বিস্তারিত

স্বার্থান্বেষী মহল যেন চবি’র সৌন্দর্য হরণেই ব্যস্ত!

কোনো নির্বাচনী আমেজ বা নির্দিষ্ট কোন উৎসব নয়। সারাবছরই বিভিন্ন অজুহাতে বিস্তারিত

দিনদুপুরে ফুটপাতেই ‘চোরাই মার্কেট’, নীরব প্রশাসন

নগরের পুরাতন এবং নতুন রেল স্টেশনের মাঝামাঝি এলাকায় ফুটপাত দখল করে গড়ে বিস্তারিত

মাস্ক নিয়ে ব্যবসায়ীদের ছিনিমিনি, বাড়তি দামে মিলছে মাস্ক

চীনে ছড়ানো ‘করোনা’ ভাইরাস থেকে রেহাই পেতে মাস্ক ব্যবহারের পরামর্শ বিস্তারিত

ধোপাছড়ি শীলঘাটা উচ্চ বিদ্যালয়ে অতিরিক্ত ফি আদায়ের অভিযোগ

চন্দনাইশ উপজেলার ধোপাছড়ি শীলঘাটা উচ্চ বিদ্যালয়ে সরকার নির্ধারিত ভর্তি বিস্তারিত

হ্যালো ওসি! ফুটপাত নাকি ফলমন্ডি?

ফুটপাত দখলমুক্ত রাখতে মেয়র নাছিরের জিরো টলারেন্স ঘোষণা দেয়ার পরও হাঁটার বিস্তারিত

শিশুবান্ধব ‘খাস্রাং রিসোর্ট’, থাকছে সুইমিংপুলে সাঁতারের সুযোগ

আলুটিলা পর্যটন-রহস্যময় গুহা এবং তেরাংতৈবাকলাই (রিছাং ঝরণা) সংলগ্ন খাস্রাং বিস্তারিত

বিষ যন্ত্রণায় সাঙ্গুর আহাজারি, কানে শুনলেও নির্বিকার স্থানীয় প্রশাসন!

সাতকানিয়া এবং চন্দনাইশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে কার্যকরী কোনো পদক্ষেপ না বিস্তারিত

সর্বশেষ

মহসিন কলেজে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ

আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সরকারি হাজী মুহাম্মদ মহসিন কলেজে বিস্তারিত

চট্টগ্রামে ইয়াবা মামলায় তিনজনের ১৫ বছরের কারাদণ্ড 

চট্টগ্রামে ইয়াবার মামলায় তিনজনকে ১৫ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। বিস্তারিত

ঝুঁকিপূর্ণ স্থানে গমনাগমনে চবি প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) বিভিন্ন ঝুঁকিপূর্ণ স্থানে শিক্ষার্থীদের বিস্তারিত

খাগড়াছড়িতে ৪ বছরেও চালু হয়নি মাতৃভাষায় পাঠদান

সরকারিভাবে সারাদেশের মতো খাগড়াছড়িতেও তিনটি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর শিশুদের বিস্তারিত

সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত, এই ওয়েব সাইটের যেকোন লিখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনি