image

আজ, সোমবার, ৯ ডিসেম্বর ২০১৯ ,


ব্রিজের নিচ থেকে তোলা হচ্ছে বালু, দেড় বছর পার হলেও সংস্কার নেই

লামায় বালু উত্তোলন নিয়ে প্রশাসনের লুকোচুরি খেলা!

লামায় বালু উত্তোলন নিয়ে প্রশাসনের লুকোচুরি খেলা!

ছবি : সিভয়েস

বান্দরবানের লামা উপজেলার সরই ইউনিয়নে ব্রিজের নিচ থেকে বালু উত্তোলন নিয়ে লুকোচুরি খেলায় মেতেছে প্রশাসন। শুধু তাই নয় বালু উত্তোলনের বিষয় অভিযোগ করা হলে সীমানা ভাগাভাগিতে মিলছে না অভিযোগের সুফল।

বিগত সময়ে বালু তোলার কারণে ইতিমধ্যে ব্রিজের অর্ধেকাংশ ধসে পড়ায় চরম ভোগান্তিতে আছে লামা উপজেলা লক্ষাধিক মানুষ। ব্রিজের ধসে যাওয়া অংশে কাঠের পাটাতন দিয়ে কোনোমতে মোটরসাইকেল, রিকশা ও সিএনজিসহ হালকা যানবাহন চলাচল করছে। ভারী গাড়িগুলো চলাচল করতে না পারায় মালামাল পরিবহন করতে চরম অসুবিধা হচ্ছে জনসাধারণের।

দেড় বছর যাবৎ ব্রিজের অর্ধেক ধসে পড়ে গেলেও মেরামত ও সংস্কারে image এখনো কোনো পদক্ষেপ নেয়নি স্থানীয় সরকার প্রকৌশলী অধিদপ্তর (এলজিইডি)। এতে করে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নিত্য চলাচল করছে সাধারণ মানুষ।  

লামা উপজেলা হতে সরই বাজার হয়ে লোহাগাড়া ও চট্টগ্রামের যোগাযোগ সড়কের সরই হাছনাপাড়া এলাকার হরিখালের উপর ব্রিজটি রয়েছে। সরই ও গজালিয়া ইউনিয়নের লোকজনের একমাত্র চলাচলের রাস্তা এটি।

ব্রিজটি দুই উপজেলার সীমানাবর্তী এলাকায় অবস্থিত। তাছাড়া লামা উপজেলা সাথে পার্শ্ববর্তী লোহাগাড়া উপজেলা ও চট্টগ্রাম বিভাগীয় শহরের যোগাযোগের মাধ্যম এই সড়কটি।

শুক্রবার (১৫ নভেম্বর) সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, ধসে যাওয়া ব্রিজটির নিচে ২টি সেলু মেশিন বসিয়ে বালু তোলা হচ্ছে। স্থানীয়রা জানান, লোহাগাড়া উপজেলার এম. চর হাট এলাকার মৌলভী মামুন ও উপজেলা শ্রমিকলীগ নেতা নুরুল হক নুনুসহ ১০/১২ জনের বিশাল একটি সিন্ডিকেট এই বালু উত্তোলনের সাথে জড়িত। তারা সকলে প্রভাবশালী হওয়ায় স্থানীয়রা তাদের বিরুদ্ধে কথা বলার সাহস করছেনা।  

নাম প্রকাশ না করা শর্তে হাছনা পাড়া এলাকার কয়েকজন বলেন, ব্রিজের এপার লামা আর ওপার হচ্ছে লোহাগাড়া উপজেলা। বালু তোলার বিষয়টি স্থানীয় প্রশাসনের সবাই জানে। তারপরেও আমরা লামার প্রশাসনের লোকজন বললে তারা বলেন, বালু লোহাগাড়া অংশ হতে তোলা হচ্ছে।

একইভাবে লোহাগাড়া উপজেলার প্রশাসনের লোকজনকে বললে ঊনারা বলেন, এই বিষয়ে লামা উপজেলার কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করতে। দুই উপজেলার কর্তাব্যক্তিদের উদাসিনতার কারণে বালু তোলা বন্ধ করা যাচ্ছেনা। বালু উত্তোলনের সাথে জড়িতরা সরকারদলীয় লোকজন ও প্রভাবশালী হওয়ায় স্থানীয়রা সরাসরি বাধা দিতে ভয় পায়। আমরা সরকারের হস্তক্ষেপ কামনা করছি। বালু তোলার কারণে বেশ কয়েকটি ব্রিজ, কালভার্ট, বিস্তৃর্ণ ফসলের জমি, খালের পাড় ও রাস্তাঘাট ভেঙ্গে যাচ্ছে। এছাড়া সরই ইউনিয়নের হরি খাল ও পুলু খালের আরো ৬/৭টি স্পট হতে বালু তোলা হচ্ছে।

এ বিষয়ে বালু তোলা সিন্ডিকেটের অন্যতম সদস্য লোহাগাড়া শ্রমিক লীগের নেতা নুরুল হক নুনু’র সাথে মুঠোফোনে কথা হয়। তিনি বলেন, আমরা সরকার থেকে ইজারা নিয়ে বালু তুলছি। চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের কার্যালয় হতে ১২ লক্ষ টাকা দিয়ে আমার ৩টি স্পট হতে বালু তোলার ইজারা নিয়েছি। ব্রিজ, কালভার্ট ও খালের পাড় ভেঙ্গে গেলে আমরা কী করব। যদিও বালু মহাল ইজারার বিষয়ে কিছুই জানেন না লোহাগাড়া উপজেলা প্রশাসন।  

সরই পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মো. মনিরুল ইসলাম সরকার বলেন, বালু তোলার অংশটি লোহাগাড়া পড়েছে। আমাদের করার কিছুই নেই।

লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূর-এ জান্নাত রুমি বলেন, খালের ওপার (লোহাগাড়া) হতে বালু তোলার কারণে আমরা কিছু করতে পারছিনা। তবে আমি লোহাগাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও লোহাগাড়া থারা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এর সাথে বিষয়টি নিয়ে কথা বলছি।

এ বিষয়ে জানতে লোহাগাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাওসিফ আহাম্মেদকে অসংখ্যবার তার মুঠোফোনে ফোন দিলেও তিনি কল রিসিভ করেননি।

-সিভয়েস/এসসি

 

আরও পড়ুন

বান্দরবানে অবৈধ ইটভাটা বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন

বান্দরবানে পাহাড়ের পাদদেশে চাষের জমি দখল করে অবৈধভাবে ইটভাটা পক্রিয়া বিস্তারিত

রুপসীপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতির ইন্তেকাল ,পার্বত্য মন্ত্রীর শোক

লামার রূপসীপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. শহীদুই ইসলাম বেপারী বিস্তারিত

দুর্বৃত্তের গুলিতে ইউপিডিএফ কমান্ডার খুন

রাঙামাটির নানিয়ারচর উপজেলার এগইজ্যাছড়ায় দুর্বৃত্তের গুলিতে ইউপিডিএফের বিস্তারিত

শান্তি চুক্তির ২২ বছর পূর্তিতে  রাঙামাটিতে বর্ণাঢ্য আয়োজন

পার্বত্য শান্তি চুক্তির ২২ বছর পূর্তি উপলক্ষে রাঙামাটিতে বর্ণাঢ্য বিস্তারিত

বান্দরবানে পার্বত্য শান্তি চুক্তির ২২তম বর্ষপূর্তি উদযাপন

বান্দরবানে পার্বত্য শান্তি চুক্তির ২২তম বর্ষপূর্তি উদযাপিত হয়েছে। বিস্তারিত

কাল পার্বত্য শান্তি চুক্তির ২২ বছর

আগামীকাল ২ ডিসেম্বর।  বহুল আলোচিত পার্বত্য শান্তি চুক্তি। স্বাক্ষরের পর বিস্তারিত

রাঙামাটিতে যুবককে গুলি করে হত্যা

রাঙামাটি সদর উপজেলার মগবান ইউনিয়নের মগবান বাজারে বিক্রম চাকমা নামে এক বিস্তারিত

লামায় এক মাসে ৩ হাতির মৃত্যু !

বান্দরবানের লামায় অসুস্থ হয়ে আরেকটি হাতি মারা গেছে। কয়েকদিন ধরে অসুস্থ বিস্তারিত

 লামায় টমটম দুর্ঘটনায় পর্যটক নিহত

লামায় টমটম উল্টে মো. রাজন মিয়া (২৮) নামে এক পর্যটক নিহত হয়েছেন। শনিবার (৩০ বিস্তারিত

সর্বশেষ

মিস ইউনিভার্স হলেন আফ্রিকান সুন্দরী!

মিস ইউনিভার্স ২০১৯ নির্বাচিত হয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার জোজিবিনি তুনজি। বিস্তারিত

সামাজিক-রাজনৈতিক দুর্নীতিই বড় দুর্নীতি: ফখরুল

বিএনপির সহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বাংলাদেশে এখন সামাজিক ও বিস্তারিত

সমুদ্র সৈকতে গড়ে উঠা অবৈধ স্থাপনা ধ্বংসের নির্দেশ কেন নয় : হাইকোর্ট

পরিবেশগত ছাড়পত্র ও সুয়ারেজ ট্রিটমেন্ট প্লান্ট ছাড়া কক্সবাজার সমুদ্র বিস্তারিত

যৌতুকের জন্য দেরিতে এলেন বর, শোধ নিলেন কনে

যৌতুকের জন্য চাপ দিতে বিয়ে করতে দেরিতে এলেন বর। এসে দেখতে পেলেন কনে তার বিস্তারিত

সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত, এই ওয়েব সাইটের যেকোন লিখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনি