image

আজ, মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯ ,


রোহিঙ্গাদের জাতীয় পরিচয় পত্র

‘প্রমাণ পাওয়া গেলে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা’

‘প্রমাণ পাওয়া গেলে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা’

প্রেস ব্রিফিংয়ে বক্তব্য রাখছেন নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম। ছবি: সিভয়েস।

রোহিঙ্গাদের জাতীয় পরিচয়পত্র দেওয়ার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম।

সোমবার (১৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে চট্টগ্রাম জেলা আঞ্চলিক কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, যদি কোন কর্মকর্তা-কর্মচারী জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া যায় তাহলে আমরা ব্যবস্থা নিব। 

তিনি বলেন, কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলেছি যেন কোন অবস্থায় রোহিঙ্গারা বাংলাদেশি জাতীয় পরিচয় পত্র না পায়। নির্বাচন কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, ডকুমেন্টের ভিত্তিতে অনেক সময় রোহিঙ্গা নাকি বাংলাদেশি তা শনাক্ত করা কঠিন হয়ে পড়ে। যারা ভোটার হতে আগ্রহী তাদের সঙ্গে সামনাসামনি যদি কথা image বলা যায় তবে বাংলাদেশি নাগরিক কিনা সেটি শনাক্ত করা সহজ হবে। 

এক প্রশ্নের উত্তরে কবিতা খানম বলেন, রোহিঙ্গাদের বায়োমেট্রিক নেওয়া আছে। সেই কপি আমরা নিয়ে এসেছি। নির্বাচন কমিশনেও বায়োমেট্রিক নিচ্ছি। ভোটার তালিকা করার আগে চট্টগ্রামের বিশেষ এলাকার ক্রসমেসে যদি মিলে যায় তাহলে রোহিঙ্গারা শনাক্ত হবে। রোহিঙ্গারা যদি তালিকাভুক্ত হয়ে থাকে, তবে তাদের খুঁজে বের করার নির্দেশনা দিয়েছি। এটি সিন্ডিকেটের মাধ্যমে হয়েছে। তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থাও নেওয়া হচ্ছে। ইতোমধ্যে কিছু গ্রেপ্তারও হয়েছে।

২০১৪ সালে ল্যাপটপ হারানো প্রসঙ্গে তিনি বলেন, তখন মামলা ও তদন্ত হয়েছে। নির্বাচন কমিশনের কেউ জড়িত থাকলে সেসব কর্মকর্তা-কর্মচারীর বিরুদ্ধে বিভাগীয় অ্যাকশন আছে। যদি বাইরের কেউ হয়ে থাকে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে ফৌজদারি অ্যাকশন হবে। তদন্তে যদি দোষী হয়, তবে অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন কবিতা খানম।

এসময় উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রামের আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মুহাম্মদ হাসানুজ্জামান, কক্সবাজার ও বান্দরবান জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা এবং ২১ উপজেলার নির্বাচন কর্মকর্তারা।

সিভয়েস/আইএইচ/এএস

আরও পড়ুন

কাজীর দেউড়ি মোড়ে ডা. জাকারিয়া চৌধুরী চত্বর উদ্বোধন

নগরীর কাজীর দেউড়ি মোড়ে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন কর্তৃক নির্মিত ডা. বিস্তারিত

চাকরি দেওয়ার নামে টাকা হাতিয়ে নিত ওরা

চাকরি দেওয়ার নামে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার মামলায় দুই প্রতারককে আটক করেছে জাতীয় বিস্তারিত

ডাক্তার শাহ আলম হত্যার মূল আসামি ফারুক আটক

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড এলাকায়  ডাক্তার মো. শাহ আলম হত্যার অন্যতম প্রধান বিস্তারিত

চমেক হাসপাতালে প্রতারক আটক

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রোগীদের সাথে বিভিন্ন সময়ে বিভিন্নভাবে বিস্তারিত

শিক্ষা বিস্তারে নূর আহমদ চৌধুরীর অবদান সর্বজন সমাদৃত : মেয়র নাছির

উপমহাদেশের অবৈতনিক প্রাথমিক শিক্ষার প্রবর্তক চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন বিস্তারিত

চীন থেকে বালু আসার হিড়িক, বন্দরে চালান আটক

  চট্টগ্রাম বন্দরে চীন থেকে বালু আসার হিড়িক যেন থামছেই না। সুতার পর এবার বিস্তারিত

বন্দরে ১৩ টন মেয়াদোত্তীর্ণ কাঁচা ফুচকার চালান জব্দ

  মালয়েশিয়া থেকে চট্টগ্রাম বন্দরে আসা মেয়াদোত্তীর্ণ ১৩ টন কাঁচা ফুচকার বিস্তারিত

কমেছে পেঁয়াজ আমদানি বেড়েছে দাম,পাইকারিতে সর্বোচ্চ ৯৫ টাকা

  বার বার ম্যাজিস্ট্রেটের অভিযানের রেশকে কেন্দ্র করে চট্টগ্রামের বিস্তারিত

বায়ু দূষণ : রতনপুর স্টিল মিলকে ৪ লাখ ৭৬ হাজার টাকা জরিমানা

নগরের নাসিরাবাদ বায়েজিদ বোস্তামী এলাকার মেসার্স রতনপুর স্টিল রি-রোলিং বিস্তারিত

সর্বশেষ

আমরা সকল মন্ত্রণালয়ে ইন্টার্নশিপ চালু করতে চাই : জয়

ইয়াং বাংলার নেয়া 'ভিশন ২০২১ ইন্টার্নশিপ' সম্পর্কে আলোচনায় তরুণদের দেয়া বিস্তারিত

 মিরসরাইয়ে চাঁদা দাবির অভিযোগে আটক ২

মিরসরাইয়ে চাঁদা দাবির অভিযোগে দুই বখাটে যুবককে আটক করেছে বিস্তারিত

ভোলার ঘটনা নিয়ে ফেসবুকে রঙ ছড়ালে কঠোর ব্যবস্থার হুঁশিয়ারি তথ্যমন্ত্রীর

ভোলার ঘটনা নিয়ে শান্তি বিনষ্টের উদ্দেশ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে রঙ বিস্তারিত

সাতকানিয়ায় ইয়াবাসহ তিন যুবক গ্রেপ্তার

চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের সাতকানিয়া রাস্তার মাথায় ২ হাজার ৫০ পিস বিস্তারিত

সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত, এই ওয়েব সাইটের যেকোন লিখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনি