image

আজ, মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ,


ঝুঁকিপূর্ণ ১৭ পাহাড়ে জেলা প্রশাসনের মাইকিং

ঝুঁকিপূর্ণ ১৭ পাহাড়ে জেলা প্রশাসনের মাইকিং

ঝুঁকিপূর্ণ পাহাড়ের পাশে বসবাসরতদের নিরাপদ স্থানে সরে যেতে মাইকিং কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে জেলা প্রশাসন। টানা ভারী বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকায় বৃহস্পতিবার (১২ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে চট্টগ্রাম মহানগরীর ঝুঁকিপূর্ণ ১৭টি পাহাড়ে এ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেনের নির্দেশনায় কার্যক্রমটির তত্বাবধান ও সমন্বয়ে রয়েছেন মহানগরের ছয়টি সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটবৃন্দ। 
তারা মতিঝর্ণা-বাটালিপাহাড়, ফয়েজ লেক সংলগ্ন ঝিল এলাকা, চান্দগাঁও এলাকাধীন মিয়ার পাহাড়, ট্যাংকির পাহাড় সংলগ্ন  এলাকায় ঝুঁকিপূর্ণভাবে বসবাসকারীদের স্থানীয় মসজিদে মাইকি করে নিরাপদ স্থানে সরে যাবার আহবান জানান। 

ইতোমধ্যে স্থানীয় কাউন্সিলরদের সহায়তায় image ও জেলা প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে মহানগরীতে ৮টি আশ্রয়কেন্দ্র প্রস্তুত রাখা হয়েছে। আকবর শাহ এলাকা ও পাহাড়তলি এলাকাধীন পাহাড়গুলোতে বসবাসকারীদের জন্য আশ্রয়কেন্দ্র হিসেবে পাহাড়তলি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়কে নির্ধারণ করা হয়েছে।  কৈবল্যধাম, লেকসিটি, ফয়েজ লেক এলাকার ১ নং ঝিল ও ২ নং ঝিল এলাকার জন্য কোয়াড পি-ব্লক সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, বিশ্ব কলোনী ও কৈবল্যধাম হাউজিং এস্টেটকে নির্ধারণ করা হয়।

এছাড়া মধুশাহ পাহাড়, পলিটেকনিক কলেজ সংলগ্ন পাহাড় এর জন্য চট্টগ্রাম মডেল হাই স্কুল, জালালাবাদ হাউজিং সংলগ্ন পাহাড়ের জন্য জালালাবাদ বাজার সংলগ্ন শেড, ট্যাংকির পাহাড়ের জন্য আল হেরা ইসলামিয়া মাদ্রাসা, মিয়ার পাহাড়ের জন্য রৌফাবাদ আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়, মতিঝর্ণা পাহাড়ের জন্য লালখান বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও পোড়া কলোনী এলাকার পাহাড়ের জন্য  ছৈয়দাবাদ  স্কুলকে আশ্রয়কেন্দ্র হিসেবে নির্ধারণ করা হয়।

উল্লেখ্য, পাহাড় ব্যবস্থাপনা কমিটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এ বছর মে থেকে জুলাই পর্যন্ত দুই দফায় নগরীর ঝুঁকিপূর্ণ পাহাড় থেকে প্রায় ৮০০ টির মতো ঝুঁকিপূর্ণ পরিবেশে বসবাসকারী পরিবারকে উচ্ছেদ করা হয়েছে। 

এসব পাহাড় থেকে উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনার পর ব্যক্তি মালিকানাধীন পাহাড়ের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি এবং সরকারি সংস্থার নিয়ন্ত্রণাধীন পাহাড়গুলোর ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট সংস্থা কে জেলা প্রশাসন চট্টগ্রামের পক্ষ থেকে দখল বুঝিয়ে দেয়া হয়েছিল।
 
তবে িপাহাড় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি ও চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নানের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, পাহাড়ে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের পরও কোনো অপমৃত্যু বা দুর্ঘটনা ঘটলে এক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট পাহাড় মালিক ও সংস্থা দায়ী থাকবেন বলে জানানো হয়।

-সিভয়েস/এএফ/এএস

আরও পড়ুন

‘কিছু খাদ্য ব্যবসায়ী কৃত্রিম সংকট তৈরি করে জনগণের পকেট কাটে’

‘সরকার খাদ্য উৎপাদনে সফলতা দাবি করলেও প্রতি বছর কৃষক কোন না কোন কৃষি বিস্তারিত

শিক্ষা দিবসে মহানগর ছাত্রলীগের বর্ণাঢ্য র‌্যালি

বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে জাতীয় শিক্ষা দিবস উপলক্ষে র‌্যালি বের করেছে বিস্তারিত

থানায় নাগরিক তথ্য নিশ্চিত করার নির্দেশ সিএমপি কমিশনারের

নগরীর পাঁচলাইশ থানা পরিদর্শন করেছেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার বিস্তারিত

রোহিঙ্গা ভোটার: নির্বাচন কার্যালয়ের কর্মচারীসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা

রোহিঙ্গাদের ভোটার তালিকায় অন্তর্ভুক্তির চেষ্টা ও ল্যাপটপ গায়েবের ঘটনায় বিস্তারিত

পেঁয়াজের দাম না কমালে কঠোর ব্যবস্থা : বিভাগীয় কমিশনার

দ্রুত পেঁয়াজের দাম না কমালে বাজারে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান চালানোর বিস্তারিত

প্রধানমন্ত্রীর আগমন ঘিরে চলছে নগরীর সড়ক সংস্কার 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার  আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর চট্টগ্রাম সফরে আসার বিস্তারিত

রোহিঙ্গাদের জাতীয় পরিচয়পত্র করে দেওয়ায় চট্টগ্রামে আটক ৩

মিয়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গাদের জাতীয় পরিচয়পত্র করে দেওয়ার সঙ্গে জড়িত থাকার বিস্তারিত

সীতাকুণ্ডে দুই কারখানায় ২৫ লাখ টাকা জরিমানা 

পরিবেশ দূষণের অভিযোগে সীতাকুণ্ডে দু’টি কারখানাকে ২৫ লাখ ৫০ হাজার টাকা বিস্তারিত

রাস্তার পাশ থেকে স্কুল শিক্ষকের নবজাতক শিশু উদ্ধার

রাস্তার পাশে চট আর পলিথিন মোড়ানো অবস্থায় এক স্কুল শিক্ষকের নবজাতক শিশুকে বিস্তারিত

সর্বশেষ

তামাকমুক্ত চট্টগ্রাম তৈরিতে গঠিত ওয়ার্কিং কমিটির সভা

তামাকমুক্ত চট্টগ্রাম শহর তৈরির লক্ষ্যে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের গঠিত বিস্তারিত

চট্টগ্রাম সাংস্কৃতিক পরিষদের দ্বি-বর্ষিক সম্মেলন সম্পন্ন

চট্টগ্রাম সাংস্কৃতিক পরিষদের দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন সম্পন্ন হয়েছে। বিস্তারিত

‘কিছু খাদ্য ব্যবসায়ী কৃত্রিম সংকট তৈরি করে জনগণের পকেট কাটে’

‘সরকার খাদ্য উৎপাদনে সফলতা দাবি করলেও প্রতি বছর কৃষক কোন না কোন কৃষি বিস্তারিত

‘শিক্ষায় দক্ষিণ এশিয়ায় অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে চসিক’

সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন বলেছেন, শিক্ষা অধিকার নিশ্চিত করতে চট্টগ্রাম বিস্তারিত

সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত, এই ওয়েব সাইটের যেকোন লিখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনি