image

আজ, মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ,


ব্যর্থতার দায় নিজ কাঁধে নিলেন সাকিব

ব্যর্থতার দায় নিজ কাঁধে নিলেন সাকিব

মাত্র তিনটি ওভার পেরুতে পারলেই ড্র পেত বাংলাদেশ। তাই সেই আক্ষেপ যেন পিছু ছাড়ছে না টাইগার শিবিরে। ছবি: আকমাল হোসেন।

দিনভর বৃষ্টি জয়োল্লাসের পর শেষ বেলায় রোদের ঝিলিকে শুরু হয় খেলা। ম্যাচ চালানোর জন্য নির্ধারিত হয় ১৮.৩ ওভার। অথচ বৃষ্টি থামুক তা চায়নি টাইগার শিবির। তাই অনেকটা হতাশা নিয়ে মাঠে নামেন অধিনায়ক সাকিব আর সৌম্য। হাতে ছিল মাত্র ৪ উইকেট। কিন্তু মাঠে নামতেই যেন চাপ ঘিরে ধরে তাদের। প্রথম বলেই অ্যাটাকিং খেলতে গিয়ে বিপদে পড়ে যান সাকিব। বামহাতি কব্জি স্পিনার জহির খানের আঘাতে উইকেট রক্ষকের হাতে তালুবদ্ধ হয়ে আউট হয়ে যান তিনি। উইকেটটি হারিয়েই আফগানিস্তানের কাছে হার অনেকটাই নিশ্চিত হয়ে যায় বাংলাদেশের।

ম্যাচ শেষে image সংবাদ সম্মেলনে এসে তাই ব্যর্থতার দায় সম্পূর্ণ নিজের কাঁধে নিয়ে নেন অধিনায়ক সাকিব। তিনি বলেন, 'আমি আমারটা বলতে পারি। বাকিদেরটা বলা কঠিন। আমি যেহেতু প্রথম বলেই আউট হয়ে গেছি। কাজটা টিমের জন্য আরও কঠিন হয়ে গেছে। তাই দায়তো আমার ওপরই পড়ে। যেহেতু প্রথম বলেই কাট শটটা না মারলেও হতো। না মারলেও হতো মানে না মারার মতোই ছিল। আমি শটটা খেলে ফেলেছি এবং টিম অনেকটা প্রেসারে পড়ে গেছে।’

সাকিব বলেন, ‘আমি যেহেতু উইকেটে ছিলাম দায়িত্ব আমার ওপরই ছিল মেইন রোলটা প্লে করার। সেটা যদি আমি করতে পারতাম ড্রেসিংরুম অনেক বেশি কমফোর্টেবল ফিল করতো। শেষ পর্যন্ত নিয়ে যেতে পারতাম অথবা ড্র করার সম্ভাবনা ছিল। যেহেতু প্রথম বলে আউট হয়ে গেছি কাজটা দলের জন্য কঠিন হয়ে গেছে।'

আফগানিস্তানের বিপক্ষে এমন হার মেনে নেয়া খুব কষ্টকর জানিয়ে সাকিব আরও বলেন, 'মেনে নেয়া অবশ্যই কষ্টকর। খুবই হতাশার ব্যাপার। যেহেতু চার উইকেট ছিল, ১ ঘন্টা ১০ মিনিট খেলতে হতো।'

এর আগে শেষ দিন বৃষ্টি সঙ্গী হওয়ায় স্বস্তি নেমে আসে টাইগার শিবিরে। তাই জিততে না পারলেও অন্তত ড্র করার স্বপ্ন দেখে তারা। কিন্তু শেষ সময় বৃষ্টি থেমে যাওয়ায় ভেঙ্গে যায় সেই স্বপ্ন।

শেষ সময়ে বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচটি নির্ধারিত হয় ১৮.৩ ওভার। টাইগার হাতে ছিল চার উইকেট। কিন্তু আফগান বোলিংয়ের তোপে মাত্র ৫৯ মিনিট মাটে টিকতে সক্ষম হয় টাইগার শিবির। দ্বিতীয় ইনিংসে ৬২ ওভার খেলে মাত্র ১৭৩ রানেই থেমে যেতে হয়েছে। হারতে হয় ২২৪ রানের বড় ব্যবধানে। অথচ যদি আর মাত্র ৩.২ ওভার মোকাবেলা করতেই পারলেই লজ্জা পেরিয়ে ড্র করার সম্ভাবনা ছিল তাদের। 

আর বাংলাদেশকে হারানোর মধ্য দিয়েই ইতিহাস গড়ে মাত্র ৩ টেস্ট খেলেই প্রথম জয়ের স্বাদ পেয়ে যায় আফগান শিবির। তাই টানা ২০ বছর ধরে টেস্ট ক্রিকেট খেলা অভিজ্ঞ বাংলাদেশ দলকে পরাজয় বরণ করতে হয় নবীন এ দলটির কাছেই।

-সিভয়েস/এএফ/এএস

আরও পড়ুন

ঢাকার গ্লানি ফেলে চট্টগ্রামে ঝলক দেখানোর অপেক্ষায় টাইগাররা

আফগানিস্তানের সাথে হারের গ্লানি নিয়ে এবার চট্টগ্রাম পর্ব শুরু করতে যাচ্ছে বিস্তারিত

পোর্ট সিটির কাছে আন্তঃ বিশ্বদ্যালয় ফুটবলের মুকুট হারালো ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়

এম এ আজিজ স্টেডিয়ামের সবুজ ঘাসে পড়ন্ত বিকেলের তপ্ত রোদে অনুষ্ঠিত হলো বিস্তারিত

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিকে কুপিয়ে হত্যা

মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরের পার্শ্ববর্তী সেগামবুট ডালাম এলাকায় বিস্তারিত

টি-টোয়েন্টি দলে নতুন তিন মুখ

আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ হারার পর পরিবর্তনের ছড়াছড়ি ত্রিদেশীয় বিস্তারিত

ব্যর্থতার বৃত্তে বাংলাদেশ, আবারও হারিয়ে দিল আফগান 

চট্টগ্রাম টেস্টের পর টি-টোয়েন্টি ত্রিদেশীয় সিরিজেও আফগানদের বিপক্ষ ২৫ বিস্তারিত

শেখ রাসেল জাতীয় ব্যাডমিন্টনে চট্টগ্রাম দলগত চ্যাম্পিয়ন

শেখ রাসেল স্মৃতি জাতীয় জুনিয়র, সাব জুনিয়র ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়নশীপ-২০১৯এ বিস্তারিত

টপ-অর্ডারের ৪ উইকেট হারিয়ে বিপদে বাংলাদেশ

আফগানিস্তানের দেওয়া ১৬৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৩২ রানে টপ-অর্ডারের বিস্তারিত

বাঁশখালীতে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত

বাঁশখালীতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল বিস্তারিত

সন্ধ্যায় আফগানিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ

ত্রিদেশীয় সিরিজে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে রোববার (১৫ সেপ্টেম্বর) বিস্তারিত

সর্বশেষ

যে বিদ্যালয়ে ভর্তির আগে সাঁতার শিখতে হয়!

যে বিদ্যালয়ে ভর্তির আগে সাঁতার শিখতে হয়!

মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম, লামা (ব

শুষ্ক মৌসুমে কখনো গলা, কখনো বুক পানি পেরিয়ে আসতে হয় বিদ্যালয়ে। খাল পেরিয়ে বিস্তারিত

তামাকমুক্ত চট্টগ্রাম তৈরিতে গঠিত ওয়ার্কিং কমিটির সভা

তামাকমুক্ত চট্টগ্রাম শহর তৈরির লক্ষ্যে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের গঠিত বিস্তারিত

চট্টগ্রাম সাংস্কৃতিক পরিষদের দ্বি-বর্ষিক সম্মেলন সম্পন্ন

চট্টগ্রাম সাংস্কৃতিক পরিষদের দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন সম্পন্ন হয়েছে। বিস্তারিত

‘কিছু খাদ্য ব্যবসায়ী কৃত্রিম সংকট তৈরি করে জনগণের পকেট কাটে’

‘সরকার খাদ্য উৎপাদনে সফলতা দাবি করলেও প্রতি বছর কৃষক কোন না কোন কৃষি বিস্তারিত

সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত, এই ওয়েব সাইটের যেকোন লিখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনি