image

আজ, মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ,


রোহিঙ্গাকন্যার কর্ণছেদনে উপহার এক কেজি সোনা, ৪৫ লাখ টাকা!

রোহিঙ্গাকন্যার কর্ণছেদনে উপহার এক কেজি সোনা, ৪৫ লাখ টাকা!

ছবি: প্রতীকী

মিয়ানমারে নির্যাতনে শিকার হয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে লাখ লাখ রোহিঙ্গা। বাংলাদেশের কক্সবাজারে বাঁশ টিনের অস্থায়ী ঘর বানিয়ে থাকেন এসব আশ্রয়হীন রোহিঙ্গারা। এদের থাকায় জায়গার অভাবের সাথে সাথে আছে খাবার, পোশাক, শিক্ষা, চিকিৎসা, কর্মসংস্থান।

মূলত একটা মানুষের বেঁচে থাকার জন্য যেসব দরকার তার সব কিছুতেই অভাবে রয়েছেন এসব লাখ লাখ রোহিঙ্গারা। কোনো রাষ্ট্রের নাগরিক না হওয়ার কারণে তারা মূলত এসব থেকে বঞ্চিত।

তবে এতো অভাবের মধ্যে জানা গেলো অদ্ভূদ এক ঘটনা। সম্প্রতি এক রোহিঙ্গা নেতার কিশোরী কন্যার কান ফোঁড়ানো অনুষ্ঠান হয়েছে। ওই অনুষ্ঠানে রোহিঙ্গা কন্যার জন্য অতিথিদের কেউ image এনেছে স্বর্ণালংকার, কেউ এনেছে রুপা। আবার অনেকে নগদ টাকা, এমনকি ছাগল নিয়েও এসেছে।

সম্প্রতি টেকনাফের ‘দুর্ধর্ষ রোহিঙ্গা ডাকাত’ নূর মোহাম্মদের কিশোরী কন্যার কান ফোঁড়ানো অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত অতিথিরা এভাবে উপহার নিয়ে আসেন। তাদের কাছ থেকে পাওয়া গেছে এক কেজি স্বর্ণালংকার ও নগদ ৪৫ লাখ টাকাসহ আরো নানা উপহার।

শুক্রবার (৩০ আগস্ট) রাতে এ চাঞ্চল্যকর ঘটনাটির সত্যতা নিশ্চিত করেন টেকনাফ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ। 

তিনি বলেন, নূর মোহাম্মদের বিরুদ্ধে থানায় হত্যা, ডাকাতি, অপহরণসহ অনেক মামলার রয়েছে এবং তিনি মোস্ট ওয়ানটেড আসামি।

তিনি আরো বলেন, কান ফোঁড়ানোর অনুষ্ঠানে এরকম উপহার সামগ্রী উঠার বিষয়টি এলাকাবাসীর কাছ থেকে জেনেছি। এ ঘটনার পর থেকে রোহিঙ্গা নূর মোহাম্মদকে ধরার জন্য কয়েক দফা অভিযান চালানো হয়েছে। কিন্তু তিনি তার বিশাল অস্ত্রধারী ডাকাত বাহিনী নিয়ে টেকনাফের পাহাড়ে আশ্রয় নিয়েছে। তাই তাকে ধরা যাচ্ছে না।

টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান রাশেদ মাহমুদ আলী বলেন, গত ২২ আগস্ট রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনের দিনই রোহিঙ্গা নূর মোহাম্মদ তার কন্যার কান ফোঁড়ানোর অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিলেন। এতে গরু-ছাগল জবাই করে আয়োজন করা হয় বড় ভোজ অনুষ্ঠানের। আমন্ত্রিতদের অধিকাংশই রোহিঙ্গা ডাকাত, সন্ত্রাসী ও রোহিঙ্গা ইয়াবা কারবারির দল।

তিনি বলেন,  ১৯৯২সালে মিয়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গা নূর মোহাম্মদ হ্নীলা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের জাদিমুরা এলাকায় এসে প্রথমে বাসা ভাড়া নিয়ে ছিলেন। ধীরে ধীরে সেখানেই জমি কিনে বাড়ির মালিক হন।

অভিযোগ রয়েছে, নূর মোহাম্মদের ডাকাত বাহিনী অপহরণ, ডাকাতি, সন্ত্রাসী, ছিনতাই, মানব পাচার এবং সর্বশেষ সীমান্তের এক চেটিয়া ইয়াবা কারবারও হাতে নেয়। ইতোমধ্যে দুই বছর আগে বাংলাদেশে লক্ষাধিক রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশের পর নূর মোহাম্মদের ক্ষমতা কয়েকগুণ বেড়ে যায়। এলাকার ৫-৬টি রোহিঙ্গা শিবির, টেকনাফের বিস্তৃত পাহাড়, সীমান্তের নাফ নদী ও নদীর ওপারের রাখাইনের অভ্যন্তরে থাকা ইয়াবা কারখানা ও গবাদি পশুর বাজারসহ একচেটিয়া নিয়ন্ত্রণে নেয় তারা। এসব কারণেই বাহিনীর সদস্যরা এখন কোটি কোটি টাকার মালিক।

ওসি প্রদীপ কুমার জানান, রোহিঙ্গা নূর মোহাম্মদের বাংলাদেশে ৪টি বাড়ি রয়েছে। তার মধ্যে একটি পাকা ভবন, একটি দু’তলা, একটি টিনের ঘর এবং অপরটি বাগান বাড়ি। রোহিঙ্গারাই তাদের ‘ওস্তাদের’ কন্যার কান ফোঁড়ানোর অনুষ্ঠানে এক কেজির মত স্বর্ণালংকার এবং সেই সাথে নগদ টাকা দেয় রীতিমত প্রতিযোগিতা করে উপহার সামগ্রী দিয়েছে। যে কারণেই এরকম অস্বাভাবিক পরিমাণে উপহার উঠেছে।

-সিভয়েস/এসএ

আরও পড়ুন

মহসিন কলেজে ‘বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযোদ্ধা কর্ণার’

দেয়ালের এক পাশে টাঙ্গানো বর্বর পাকবাহিনীর হিংস্রতার ছোপ, ইটের চাপায় পড়ে বিস্তারিত

অক্টোবরে খাগড়াছড়ি আ’লীগের সম্মেলন, নেতৃত্বে আসতে পারে নতুন ‍মুখ

খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামী লীগের আসন্ন কাউন্সিলে নেতৃত্বে নতুন মুখের পদধ্বনি বিস্তারিত

সংকটে চট্টগ্রাম কলেজ, অতিরিক্ত দায়িত্ব পালনেই কেটে যায় বছর

১৮৩৬ সালে চট্টগ্রাম জেলা স্কুল হিসেবে জন্ম বর্তমান সময়ের চট্টগ্রাম উচ্চ বিস্তারিত

খালেদার মুক্তি নাকি নির্বাচন, কোনটি আগে প্রশ্ন তৃণমূলের!

চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির থানা ও ওয়ার্ড কমিটি পূর্ণাঙ্গ করার প্রক্রিয়া বিস্তারিত

বদি কন্যার রাজকীয় বিয়ে, দাওয়াত না পেয়ে ক্ষুদ্ধ নেতাকর্মীরা

মহা ধুমধামে রাজকীয় উৎসবে বিয়ে হলো কক্সবাজার-৪ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য বিস্তারিত

আন্তর্জাতিক তকমা হারাতে বসেছে জহুর আহমেদ স্টেডিয়াম! 

আসন্ন একমাত্র টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি সিরিজের ৩টি আন্তর্জাতিক ম্যাচ অনুষ্ঠিত বিস্তারিত

মাঠ সংকটে পিছিয়ে যাচ্ছে চট্টগ্রামের ফুটবল

খেলার ইভেন্ট অনেক কিন্তু মাঠ একটাই। ফলে অনেক ইভেন্টের চাপে এক প্রকার বিস্তারিত

চট্টগ্রামে পরিত্যক্ত প্লাস্টিকের বোতলেই মিলছে গাছের চারা

`‌‌‌দি‌লে বোতল মিলবে গাছ, সুস্থভাবে নিবো শ্বাস, ফেলবে ময়লা যত্রতত্র, বিস্তারিত

জরাজীর্ণ বেড়িবাঁধ উপচে লোকালয়ে জোয়ারের পানি, ঝুঁকিতে চিংড়ি ঘের  

কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলার মগনামা ইউনিয়নে জরাজীর্ণ বেড়িবাঁধ উপচে গত বিস্তারিত

সর্বশেষ

তামাকমুক্ত চট্টগ্রাম তৈরিতে গঠিত ওয়ার্কিং কমিটির সভা

তামাকমুক্ত চট্টগ্রাম শহর তৈরির লক্ষ্যে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের গঠিত বিস্তারিত

চট্টগ্রাম সাংস্কৃতিক পরিষদের দ্বি-বর্ষিক সম্মেলন সম্পন্ন

চট্টগ্রাম সাংস্কৃতিক পরিষদের দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন সম্পন্ন হয়েছে। বিস্তারিত

‘কিছু খাদ্য ব্যবসায়ী কৃত্রিম সংকট তৈরি করে জনগণের পকেট কাটে’

‘সরকার খাদ্য উৎপাদনে সফলতা দাবি করলেও প্রতি বছর কৃষক কোন না কোন কৃষি বিস্তারিত

‘শিক্ষায় দক্ষিণ এশিয়ায় অনন্য দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে চসিক’

সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন বলেছেন, শিক্ষা অধিকার নিশ্চিত করতে চট্টগ্রাম বিস্তারিত

সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত, এই ওয়েব সাইটের যেকোন লিখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনি