image

আজ, মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই ২০২০ ,


দ্রুত শাস্তি নিশ্চিত না করায় ধর্ষণ বাড়ছে : হাইকোর্ট

দ্রুত শাস্তি নিশ্চিত না করায় ধর্ষণ বাড়ছে : হাইকোর্ট

দ্রুততম সময়ে অপরাধীদের বিচার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে না পারায় ধর্ষণের মতো অপরাধ বাড়ছে বলে পর্যবেক্ষণ দিয়েছেন হাইকোর্ট। ধর্ষণ সংক্রান্ত মামলায় দুই আসামির জামিন আবেদন খারিজ করে মঙ্গলবার (২০ আগস্ট) আদালতের লিখিত আদেশ সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইটে প্রকাশ করা হয়েছে।

এর আগে হাইকোর্টের বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চের বিচারকদের স্বাক্ষরের পর প্রকাশ ওই লিখিত আদেশে এই পর্যবেক্ষণ দেখা গেছে।

আদালত পর্যবেক্ষণে বলেছেন, সাম্প্রতিক সময়ে দেশে ধর্ষণ বিশেষত শিশু ধর্ষণ ও ধর্ষণ পরবর্তী হত্যার মতো ঘৃণ্য অপরাধ বেড়েই চলেছে। এই অপরাধের image সঙ্গে জড়িত অপরাধীর দ্রুততম সময়ে বিচার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করতে না পারার দায় মূলত রাষ্ট্রের ওপরই বর্তায়। এক্ষেত্রে বিচার বিভাগও জবাবদিহিতার ঊর্ধ্বে নয়।

আদালত লিখিত আদেশে আরও বলেছেন, আমাদের অভিজ্ঞতা হলো, ধর্ষণ সংক্রান্ত মামলার আসামিরা অধিকাংশ ক্ষেত্রেই বেপরোয়া ও ধূর্ত প্রকৃতির। এরা ভুক্তভোগী ও তার পরিবারের ওপর চাপ-প্রভাব বিস্তার করে আদালতে সাক্ষ্য প্রদানে ভয়-ভীতি, প্রলোভনসহ বিভিন্ন ধরনের কূটকৌশল অবলম্বন করে। ক্ষেত্র বিশেষে সালিশের নামে সামাজিক বিচার করে ভুক্তভোগী ও তার পরিবারকে মামলা প্রত্যাহারে বাধ্য এবং আদালতে সাক্ষ্য প্রদানে বিরত থাকার জন্য চাপ প্রয়োগ করে থাকে। এ অবস্থায় সাক্ষী সুরক্ষা আইন প্রণয়নের বিকল্প নেই। আমরা প্রত্যাশা করছি সরকার দ্রুততম সময়ে এ বিষয়ে আইন প্রণয়ন করবে।

আদালত বলেন, দেশের বিভিন্ন নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক ধর্ষণ ও ধর্ষণ পরবর্তী হত্যাসহ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের মামলাসমূহ বিচারের জন্য অপেক্ষমান। এর মধ্যে ৪-৫ বছরের পুরাতন মামলার সংখ্যাও কম নয়। অভিযোগ গঠনে বিলম্ব এবং যুক্তিসংগত কারণ ছাড়া ধার্য তারিখে রাষ্ট্রপক্ষে সাক্ষী উপস্থিত না হওয়ায় ট্রাইব্যুনাল কর্তক কয়েক মাস পরপর তারিখ পড়ছে। যদিও এই (নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন- ২০০০) আইনের ২০(৩) ধারায় সুস্পষ্টভাবে উল্লেখ রয়েছে, মামলা বিচারের জন্য নথি প্রাপ্তির তারিখ হতে ছয় মাসের মধ্যে বিচার কাজ শেষের পর।

প্রসঙ্গত, ধর্ষণের মামলায় বিচারিক আদালতে জামিন না মঞ্জুরের পর আসামি মো. রাহেল ওরফে রায়হান এবং মো. সেকান্দার আলী জামিন বিষয়ে হাইকোর্টে আপিল করেন। কিন্তু আদালত তাদের আবেদন নামঞ্জুর করে পর্যবেক্ষণসহ উক্ত আদেশ দেন।

সিভয়েস/এএইচ

আরও পড়ুন

পহেলা জুলাই থেকে 'একচুয়াল কোর্ট' চান আইনজীবীরা

চলমান ভার্চুয়াল কোর্ট বাতিল করে একচুয়াল কোর্ট চালুর দাবি তুলেছে বিস্তারিত

বাকলিয়ায় শিশু আরাফ খুনের দায় স্বীকার আসামি হাসানের

বাকলিয়ার শিশু আরাফ খুনের দায় স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তি মুলক বিস্তারিত

‘হ্যালো রোহান’/ সেই চিকিৎসক আদনানের জামিন

করোনাভাইরাস নিয়ে গুজব ছড়ানোর মামলায় গ্রেফতার হয়ে কারাগারে যাওয়া চিকিৎসক বিস্তারিত

নামেই ভার্চুয়াল কোর্ট, আইনজীবীদের যেতে হচ্ছে আদালতে

ভার্চুয়াল কোর্টের বেড়াজালে পড়ে হিমশিম খাচ্ছেন চট্টগ্রামের আইনজীবীরা। বিস্তারিত

চট্টগ্রামে ভার্চুয়াল কোর্ট চালু, বুধবার থেকে জামিন শুনানি

চট্টগ্রাম আদালতে ভার্চুয়াল কোর্ট চালু হয়েছে। মঙ্গলবার (১২ মে) ডিজিটাল এ বিস্তারিত

হালদায় ডলফিন হত্যা বন্ধের নির্দেশ হাইকোর্টের

দেশের একমাত্র প্রাকৃতিক মৎস্য প্রজনন ক্ষেত্র হালদা নদীতে ডলফিন হত্যা বিস্তারিত

চলছে আদালতে ভার্চুয়াল শুনানি

সারাদেশের অধস্তন আদালতে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে অনলাইনে মামলা শুনানি শুরু বিস্তারিত

১৬ মে পর্যন্ত সকল আদালতের ছুটি গড়াল

দেশের সকল আদালতের কার্যক্রম আগামি ১৬ মনে পর্যন্ত বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। বিস্তারিত

সপ্তাহে দু'দিন নিম্ন আদালত খোলা রাখার সিদ্ধান্ত স্থগিত

চট্টগ্রামসহ দেশের নিম্ন আদালতগুলো সপ্তাহে দু'দিন খোলা রাখার যে বিস্তারিত

সর্বশেষ

ঈদ জামাতে মানতে হবে ১৩ নির্দেশনা

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে জামাত মসজিদে আদায় করা, কোলাকুলি না বিস্তারিত

রাঙ্গামাটিতে বিদ্যুৎপৃষ্টে নিহত দুই শ্রমিকের পরিবারকে আর্থিক সহায়তা প্রদান

রাঙ্গামাটি মেডিকেল কলেজের নীচতলায় নির্মাণাধীন পিসিআর ল্যাব বিদ্যুতিক বিস্তারিত

জাম্বুরি পার্ক এলাকায় বাশঁখালীর গণধর্ষণ মামলার আসামি গ্রেফতার

নগরীর ডবলমুরিং থানাধীন জাম্বুরি পার্ক এলাকা থেকে আবু তালেব (৪৫) নামের বিস্তারিত

নগরীর প্রান্তিক শ্রেণিকে আর্থ-সামাজিক নিরাপত্তায় আনা হবে: মেয়র

নগরের পাথরঘাটায় বান্ডেল রোডে সেবক কলোনীতে ১৪ তলা বিশিষ্ট ৩টি নির্মাণাধীন বিস্তারিত

সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত, এই ওয়েব সাইটের যেকোন লিখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনি