image

আজ, শুক্রবার, ৩ জুলাই ২০২০ ,


একটি সেতু হলেই দু:খ ঘুছাবে দশ গ্রামের মানুষের

একটি সেতু হলেই দু:খ ঘুছাবে দশ গ্রামের মানুষের

ছবি : সিভয়েস

একটি সেতুর দাবি এলাকাবাসীর দীর্ঘদিনের। আর এ সেতুটি  হলেই যাতায়াতের দুঃখ ঘুছাবে দশ গ্রামের প্রায় দশ হাজার মানুষের।

ফটিকছড়ির নারায়ণহাট ইউনিয়নের নারায়নহাট বাজার সংলগ্ন হালদা নদীর উপর একশ মিটার দীর্ঘ একটি সেতু নির্মাণের দাবি জানিয়ে আসছে এলাকার লোকজন। সেতুটি নির্মিত হলে যাতায়াত ভোগান্তি লাঘবের পাশাপাশি এলাকাবাসীর জীবনযাত্রার মান উন্নতি হবে বলেও মনে করেন সচেতন মহল।

সরেজমিনে দেখা যায়, ফটিকছড়ি উপজেলা হতে প্রায় ১৭ কি.মি. উত্তরে ৩ নম্বর নারায়ণহাট ইউনিয়নকে দ্বিখন্ডিত করেছে উত্তাল প্রমত্তা হালদা নদী। নদীর পূর্ব image পাড়ে রয়েছে সুন্দরপুর, হাপানিয়া, সন্দীপ পাড়া, পিলখানা, সুন্দর শাহ ছিলাই সহ বেশ কয়েকটি গ্রাম। নারায়ণহাট ফরেষ্ট রেঞ্জ অফিস, নারায়ণহাট আলিম মাদ্রাসা, অন্যতম আউলিয়া হযরত শাহ সুন্দর (রা.) এর আস্তানা শরীফ।

আর পশ্চিম পাড়ে রয়েছে- নারায়ণহাট বাজার, নারায়ণহাট ইউনিয়ন ভূমি অফিস, বাস স্টেশন, নারায়ণহাট কলেজ, নারায়ণহাট মহিলা মাদ্রাসা, নারায়ণহাট কলেজিয়েট উচ্চ বিদ্যালয়, নারায়ণহাট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় সহ বেশ কটি কিন্ডারগার্টেন ও  প্রাথমিক বিদ্যালয়। আর এই নদী পারাপারের জন্য গ্রামবাসীকে ব্যবহার করতে হয় এলাকাবাসীর চাঁদার বিনিময়ে বানানো ৩০০ ফুট  দীর্ঘ নড়বড়ে কাঠের সাঁকো।

এই ইউনিয়নের বাসিন্দা নোমান বিন খুরশিদ জানান, ব্যবসা- বাণিজ্য, চিকিৎসা, শিক্ষা সহ প্রতিটি গুরুত্বপূর্ণ কাজে প্রতিদিন কাঠের সাঁকো ব্যবহার করে স্কুল কলেজ মাদ্রাসার ছাত্র ছাত্রী সহ আশপাশের প্রায় ১০ হাজার মানুষ। শুধু তাই নয়, ঝুঁকি নিয়ে পার হতে হয় সিএনজি অটোরিকশা, রিকশা, ভ্যান, মোটরসাইকেলের মতো যানবাহনকে।

নারায়নহাট বাজারের ব্যবসায়ী মো. সেলিম উদ্দিন জানান, কারো জরুরি চিকিৎসার জন্য স্থানীয় মেডিকেল বা চট্টগ্রাম মেডিকেলে যেতে হলে অনেক কষ্টে পার হতে হয় কাঠের সাঁকোটি। চট্টগ্রাম শহর থেকে ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ে গ্রামে আসা লোকজনকে গাড়িগুলো হয় বাজারেই পার্কিং করতে হয়, না হয় পাশের মির্জারহাট ব্রিজ দিয়ে গ্রামে ঢুকতে হয়। গ্রামের কোনো মানুষ কোথাও মৃত্যুবরণ করলে তাঁর মরদেহবাহী গাড়িটিও গ্রামে ঢুকতে পারেনা। বন্যা হলে সাঁকোর অবস্থা হয়ে উঠে বেশ ঝুঁকিপূর্ণ। সাঁকোটির কারণে ব্যাহত হচ্ছে দশ গ্রামের আর্থ সামাজিক উন্নয়ন।

নারায়ণহাট জমিদার বাড়ির বাসিন্দা ব্যবসায়ী রাকিবুল আলম চৌধুরী বলেন,  হালদা নদীর নারায়ণহাট ঘাটে একটি সেতু হলে অবহেলিত গ্রামগুলো পাবে উন্নয়নের ছোঁয়া। একটি সেতুর অভাবে আমরা সুষম উন্নয়ন হতে পিছিয়ে আছি। তাই সংশ্লিষ্ট জনপ্রতিনিধি ও স্থানীয় সরকার বিভাগে বার বার বিভিন্ন আবেদন জানিয়ে আসছি।

এ বিষয়ে নারায়ণহাট ইউপি চেয়ারম্যান মো. হারুনুর রশিদ বলেন, হালদা নদীর পুরানো কাঠের সাঁকোটিকে ঘিরে জনদূর্ভোগের সীমা নেই। এখানে একটি সেতুই পারে প্রায় ১০টি গ্রামের ১০হাজার মানুষের যোগাযোগ ও জীবন ব্যবস্থা পরিবর্তন করতে। তাই বার বার সংশ্লিষ্ট দপ্তরে আবেদন নিবেদন করেই চলেছি।

ফটিকছড়ি উপজেলা এলজিইডি প্রকৌশলী মো. শাহ আলম বলেন, নারায়ণহাট বাজারের পাশে হালদা নদীতে একটি সেতু নির্মাণের জন্য এলাকাবাসীর দাবি দীর্ঘদিনের। এখানে একশ মিটার দীর্ঘ একটি সেতু নির্মাণের জন্য রিপোর্ট তৈরি করে পাঠানো হয়েছে। ফাইলটি প্রসেসিংয়ে আছে এলজিইডি'র প্রধান কার্যালয়ে। সেখান থেকে আদেশ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান তিনি।

-সিভয়েস/এসএ

আরও পড়ুন

সাধারণ কাশি-জ্বরে এন্টিবায়োটিক, নষ্ট হচ্ছে শরীরের এন্টিবডি

বিশ্ব মহামারী নভেল করোনা (সার্স কোভ-২) ভাইরাস প্রতিরোধে এখনও কোনো ওষুধ বিস্তারিত

অক্সিজেন সংকটে নিঃশ্বাস নিতে কষ্ট হচ্ছে ‌‘চট্টগ্রামের’

নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শুরুর পর থেকে চারদিকে আইসিইউ সংকট নিয়ে চলছে বিস্তারিত

প্রস্তুত হয়নি ইউএসটিসি-ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল, দিতে হবে চিকিৎসা ব্যয় 

চট্টগ্রাম নগরের বেসরকারি বৃহৎ দুটি হাসপাতালে করোনা চিকিৎসা চালুর সরকারি বিস্তারিত

মুখেই ফ্রন্টফাইটার, জে. হাসপাতালের স্বাস্থ্যকর্মীদের বেতন 'বন্ধ' ৫ মাস

কোভিড হাসপাতাল ঘোষিত চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতাল। চট্টগ্রামে করোনা বিস্তারিত

অনাদরে থাকা হাসপাতালটিই এখন শেষ ভরসাস্থল

হাসাপাতাল সড়কেই গাড়ির লম্বা লাইন, মূল ফটকে প্রতিদিন ভেসে বেড়ায় ময়লার ভাগাড়, বিস্তারিত

ক্লিনিকে করোনা চিকিৎসা, সরকারি সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে সংশয়

চট্টগ্রাম মহানগরীর বেসরকারি হাসপাতালগুলোতে ৪ হাজার ১৫৭টি শয্যা থাকলেও বিস্তারিত

চট্টগ্রামে মাথাচাড়া দিয়ে উঠছে বিলবোর্ড, মেয়রের কড়া হুঁশিয়ারি

বন্দর নগরী চট্টগ্রামের প্রধান সড়কে গত কয়েক বছর ধরে নয়নভরে সবুজ প্রকৃতি বিস্তারিত

করোনা/টিউশনি বন্ধে জীবিকা নিয়ে গৃহশিক্ষকদের কপালে চিন্তার ভাজ

টানা লকডাউনে টিউশনি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বিপাকে পড়েছেন গৃহশিক্ষকেরা। করোনা রোধ বিস্তারিত

করোনাকাল/ ইফতার বাজারে নেই সেই জৌলুশ, পাড়ার দোকানে মানছে না নিয়ম

সারাদেশে করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) বিস্তার ঠেকাতে লকডাউন চলার মধ্যেই বিস্তারিত

সর্বশেষ

শিশুদের চিকিৎসার জন্য হাহাকার

করোনা পরিস্থিতিতে বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা ব্যবস্থা ভেঙ্গে পড়ায় বিস্তারিত

আধুনিকায়নের জন্য পাটকল বন্ধের ঘোষণা

'বিশ্বব্যাপী পাটের চাহিদা বাড়ছে। একটি পাট গাছের প্রতিটি অংশ কাজে লাগে। বিস্তারিত

পরিবহনে স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করায় ২০ জনকে জরিমানা

করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় আরোপিত স্বাস্থ্যবিধি অমান্য করায় বাস, সিএনজি ও বিস্তারিত

বাঁশখালীতে আইসোলোশন সেন্টারের যাত্রা শুরু

আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে করোনা রোগীদের সেবার লক্ষে যাত্রা শুরু বিস্তারিত

সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত, এই ওয়েব সাইটের যেকোন লিখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনি