image

আজ, রবিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯ ,


ঝুঁকিপূর্ণ জেনেও পাহাড় থেকে সরছে না মানুষ

ঝুঁকিপূর্ণ জেনেও পাহাড় থেকে সরছে না মানুষ

কক্সবাজার জেলায় বিভিন্ন পাহাড়ে ঝুঁকি নিয়ে বসবাস করছে দুই লক্ষাধিক মানুষ। তারমধ্যে পৌরসভার অভ্যন্তরে অতি ঝুঁকি নিয়ে বসবাস করছে ৯শত ৯৮টি পরিবার। প্রতি বছর বর্ষা মৌসুমে পাহাড় ধ্বসে জান-মালের ব্যাপক ক্ষতির পরও ঝুকি’র মাঝেই এসব মানুষ বসবাস করে যাচ্ছে।

প্রতি বছর পাহাড় ধ্বসে প্রাণহানির সংখ্যা বাড়লেও সেদিকে কোন খেয়াল নেই ঝুঁকিপূর্ণভাবে বসবাসকারী এসব মানুষের। ঝুঁকিতে থাকা এসব লোকজন বলছেন তাদের স্থায়ী নিরাপদ আশ্রয় নিশ্চিত করা না হলে পাহাড় ছাড়বেনা।

অন্যদিকে প্রশাসন বলছেন পাহাড় কারো ব্যক্তি মালিকানাধীন হতে পারেনা। যারা দখল করছে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। আর জনগণের জান মাল রক্ষার্থে ঝুঁকিপূর্ন অবস্থায় থাকা লোকজনকে সরিয়ে ফেলা হবে। জান রক্ষার্থে প্রয়োজনে জোরপূর্বক সরানো হবে।

এদিকে গত ৪ দিন ধরে টানা বৃষ্টিতে যেকোন মুহুর্তে পাহাড় ধ্বসে মানবিক বিপর্যয় ও সম্পদের ক্ষয়ক্ষতি হওয়ার আশংকায় ঝুঁকিপুর্ণ বসবাসকারীদের নিরাপদ স্থানে সরে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছে জেলা প্রশাসন। শহর সহ প্রতিটি উপজেলায় মাইকিং করে পাহাড়ে ঝুকি নিয়ে বসবাসকারীদের নিরাপদ স্থানে সরে যেতে অনুরোধ করা হচ্ছে।

সিপিভি ভলান্টিয়ার, রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি, এনজিও সহ বিভিন্ন গ্রুপ ঝুকিপুর্ণ এলাকায় গিয়ে লোকজনকে সরিয়ে নিতে প্রস্তুত রয়েছে।

এদিকে ঝুঁকিপূর্ণভাবে বসবাসকারীরা বলছেন তাদের কোন থাকার স্থান না থাকায় পাহাড়ে ঝুঁকি জেনেও বসবাস করছে। সরকারের প্রতি তাদের দাবি বসবাসের জন্য নিরাপদ স্থায়ী স্থান দেওয়া হোক।

শহরের খাঁজা মঞ্জিলের পাহাড়ে অবস্থান করা রাবেয়া খাতুন জানান, গত ৯ বছর ধরে এই পাহাড়ে অবস্থান করছেন। প্রতি বছর বর্ষায় বৃষ্টি হলেই ভয় লাগে। কখননা পাহাড় ধ্বসে পড়ে। সরকার যদি আমাদের জন্য স্থায়ীভাবে নিরাপদ কোন আশ্রয়ের ব্যবস্থা করত তাহলে আর এই আতংকে থাকতে হতনা।’

পাহাড়তলী এলাকার নুরুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তি জানান, ‘নিরাপদ স্থানে সরে যাওয়ার জন্য মাকিং করলেও কিছু করার থাকছে না। ঝুঁকি থাকলেও পাহাড় ছাড়তে পারবনা। বউ-বাচ্চা নিয়ে কোথাও যাওয়ার জায়গা নেই। সুতরাং কাপালে যা আছে তাই হবে।’

পাহাড় কেন দখল করে আছে এমন প্রশ্নে নুরুল ইসলাম বলেন, তিনি এক প্রভাবশালীর কাছ থেকেই এই জায়গা কিনেছে। তার থাকার কোন জায়গা নেই তাই অল্প টাকায় পাহাড়ে উচুঁতে জায়গা কিনেছেন।

কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামাল হোসেন জানান, কয়েকদিনের টানা বৃষ্টি পাহাড়ে ঝুঁকিপূর্ন পরিবেশ সৃষ্টি হয়েছে। যেকোন মুহুর্তে পাহাড় ধ্বসের আশংকা রয়েছে। তাই কেউ যাতে মানবিক বিপর্যয় ও সম্পদের ক্ষয়ক্ষতির শিকার না হয় সেই লক্ষ্যে জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে সার্বিক প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়েছে। লোকজনকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়ার জন্য মাইকিং অব্যাহত রয়েছে। লোকজনকে অনুরোধ করা হচ্ছে নিরাপদ স্থানে সরে যেতে। পরিস্থিতি বেশি ঝুঁকিপূর্ণ হলে প্রশাসন দিয়ে লোকজনকে সরিয়ে নেওয়া হবে। প্রয়োজনে উচ্ছেদ করা হবে পাহাড়ে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় থাকা বসতি। 

পাহাড়ের পাদদেশে বা পাহাড়ের চুড়ায় অতি ঝুঁকি নিয়ে বসবাস করা পরিবারের জন্য একটি স্থানে অবকাঠামো তৈরি করে নিরাপদে সরিয়ে নিয়ে জীবন-জীবিকার একটি প্রস্তাবনা দাখিল করা হয়েছে বলেও জানান জেলা প্রশাসক। আর এসব পাহাড়ে বনায়ন করে পরিবেশ রক্ষার পাশাপাশি ঝুঁকিপুর্ণদের বিপর্যয় ও সম্পদের ক্ষতি থেকে রক্ষা করা যাবে বলে মনে করছেন সচেতন মহল।

সিভয়েস/এএস 
 

আরও পড়ুন

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনসহ বিভিন্ন দাবিতে ‘আমরা কক্সবাজারবাসী’র মানববন্ধন

বাংলাদেশে আশ্রিত রোহিঙ্গাদের দ্রুত স্বদেশ প্রত্যাবাসন, কতিপয় এনজিওদের বিস্তারিত

রোহিঙ্গাদের দেখতে কক্সবাজারে মার্কিন প্রতিনিধি দল

মিয়ানমার থেকে পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের বর্তমান অবস্থা বিস্তারিত

রোহিঙ্গা পরিস্থিতি দেখতে কক্সবাজারে চীনের প্রতিনিধি দল

বাংলাদেশে আশ্রিত মিয়ানমারের নাগরিক রোহিঙ্গাদের পরিস্থিতি দেখতে বিস্তারিত

টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ রোহিঙ্গা ডাকাত নিহত

কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের হাতে আটক অস্ত্রধারী রোহিঙ্গা ডাকাত নিয়ে বিস্তারিত

কক্সবাজারে চাকরির নামে প্রতারণা, আটক ৪

‘বিএমএম ফাউন্ডেশন’ নামে একটি ভুয়া প্রতিষ্ঠানে চাকরি দেওয়ার নাম করে বিস্তারিত

টেকনাফে বন্দুকযুদ্ধে যুবলীগ নেতা হত্যা মামলার দুই আসামি নিহত

কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে যুবলীগ নেতা ওমর ফারুক বিস্তারিত

পেকুয়ায় চোরাই অটোরিকশা উদ্ধার, দুই যুবক গ্রেফতার

কক্সবাজারের পেকুয়ায় চুরি হয়ে যাওয়া একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশা উদ্ধার বিস্তারিত

টেকনাফে পাহাড় ধসে ২ শিশুর মৃত্যু, আহত ৬

কক্সবাজারের টেকনাফে ভারী বর্ষণে পাহাড় ধসে ঘুমন্ত অবস্থায় ২ শিশুর মৃত্যু বিস্তারিত

সেই রোহিঙ্গা তরুণী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সাময়িক বহিষ্কার

সম্প্রতি নানা সংবাদ ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আলোচিত রোহিঙ্গা তরুণী বিস্তারিত

সর্বশেষ

‘রূপালী গিটারের’ পর্দা উঠছে বুধবার

‘চলে গেছি শুধু/ সুর থেকে কত সুরে/ এই রুপালি গিটার ফেলে’, গেয়েছিলেন বিস্তারিত

শেখ রাসেল জাতীয় ব্যাডমিন্টনে চট্টগ্রাম দলগত চ্যাম্পিয়ন

শেখ রাসেল স্মৃতি জাতীয় জুনিয়র, সাব জুনিয়র ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়নশীপ-২০১৯এ বিস্তারিত

মহসিন কলেজে ‘বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযোদ্ধা কর্ণার’

দেয়ালের এক পাশে টাঙ্গানো বর্বর পাকবাহিনীর হিংস্রতার ছোপ, ইটের চাপায় পড়ে বিস্তারিত

রোহিঙ্গা ভোটার: চট্টগ্রাম জেলা নির্বাচন অফিসে দুদকের অনুসন্ধান

বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের ভোটার আইডি পাওয়ার বিষয়ে অনুসন্ধানে বিস্তারিত

সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত, এই ওয়েব সাইটের যেকোন লিখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনি