image

আজ, রবিবার, ৮ ডিসেম্বর ২০১৯ ,


ফটিকছড়িতে আষাঢ়েও মিলছে মৌসুমী ফল

ফটিকছড়িতে আষাঢ়েও মিলছে মৌসুমী ফল

ছবি সিভয়েস

ফটিকছড়িতে বর্ষা মৌসুম আষাঢ়েও মিলছে মৌসুমী রসালো ফলমূল। সাধারণত বৈশাখ- জৈষ্ঠ্যের মৌসুমী ফলমূল আষাঢ় মাসেও ব্যাপকভাবে পাওয়া যাচ্ছে উপজেলার সর্বত্র। বাগান কিংবা হাট-বাজার সবখানেই রসালো ফল চোখে পড়ছে।বাতাসে ভাসছেimage style="font-family:Calibri, sans-serif"> মৌসুমী ফলের মৌ মৌ সু-গন্ধ। বিকিকিনিও চলছে বেশ।

এদিকে, উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজারে জমে উঠেছে মৌসুমী ফলের বাজার। আম, জাম, আনারস, কাঁঠাল, জামরুলসহ বাহারি মৌসুমী ফলে সয়লাব উপজেলার হাটবাজার। তবে দাম একটু চড়া হওয়ায় নিম্ন আয়ের সাধারণ মানুষগুলো চাহিদা অনুযায়ী ক্রয় করতে পারছে না বলেও অভিযোগ রয়েছে।

জানা যায়, উপজেলার বিভিন্ন স্থানে বিশেষ করে পাহাড়ি এলাকাগুলোতে আম, কাঁঠাল, আনারস ভাল ফলে। তাই ফলের বাগান করা ছাড়াও বসত ভিটায় ফলের গাছ লাগিয়ে নিজেদের চাহিদা মিটিয়ে বাজারে বিক্রি করছেন অনেকে।

এছাড়া বিক্রেতারা র্পাবত্য অঞ্চলের হাটবাজার থেকে সংগ্রহ করে ফটিকছড়িতে বিক্রি করে বিধায় ক্রেতারা খুব সহজে ক্রয় করতে পারছেন মৌসুমী ফল। ইতোমধ্যে উত্তর ফটিকড়ির হাটবাজারগুলোতে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের পাইকারি ব্যবসায়ীদের সমাগমে সরব হয়ে উঠেছে। বিশেষ করে অঞ্চলের উৎপাদিত কাঁঠাল সংগ্রহ করে নিয়ে যাচ্ছে উপজেলার নাজিরহাট, বিবিরহাট, নানুপুরসহ বিভিন্ন হাটবাজারে।

সরেজমিনে কয়েকটি বাজার ঘুরে দেখা যায়, মৌসুমী ফলমূল আম, জাম, কাঁঠাল, আনারস, খেজুর, জামরুলসহ বিভিন্ন মৌসুমী ফলে বাজার সয়লাব।এসব মৌসুমী ফল ক্রয়ে ক্রেতাদের ভিড় লক্ষণীয়। তবে দাম কিছুটা চড়া হওয়ায় নিম্ন আয়ের মানুষগুলো চাহিদা অনুযায়ী ক্রয় করতে পারছে না। ছোট সাইজের প্রতি কাঁঠাল ৫০-৮০টাকা, মাঝারি সাইজের প্রতি কাঁঠাল ১০০-১৫০টাকা, বড় সাইজের প্রতি কাঁঠাল ২০০-৩০০পর্যন্ত বিক্রি হচ্ছে। দেশিয় আম প্রতি কেজি ৪০-৬০ টাকা, গোপালভোগ, মোহনভোগ, ল্যাংড়াসহ বিভিন্ন প্রজাতের আম বিক্রি হচ্ছে ১০০-২৫০টাকা র্পযন্ত।

দিনমজুর খোরশেদুল আলম বলেন, বছরের ফল হিসেবে পরিবারের জন্য ক্রয় করছি। দাম বেশি হওয়ায় চাহিদামত ক্রয় করতে পারছি না।

বিক্রেতা বাবুল বলেন, দাম বেশি হলেও বিক্রি ভাল হচ্ছে তবে কিছুদিন পর দাম কমবে, তখন বেচা বিক্রি আরো ভাল হবে।

-সিভয়েস/এএস/এসএ

আরও পড়ুন

প্রতিশ্রুতিতেই সীমাবদ্ধ চট্টগ্রামে শিক্ষার্থীদের হাফ ভাড়ার দাবি

নগরীর বিভিন্ন রুটে ৮ হাজারেরও বেশি বাস চলাচল করে। এসব গণপরিবহনের মধ্যে বিস্তারিত

স্বপ্ন পূরণের পথে দৃষ্টিপ্রতিবন্ধীরা এগিয়ে

চোখের আলোয় পৃথিবীর সৌন্দর্য দেখতে পায় না সে। তবুও থেমে যায়নি। বড় হওয়ার বিস্তারিত

চমেকে এআরটিতে চিকিৎসাধীন রোগীরা হতাশ!

ফটিকছড়ি উপজেলার আবু সাইদ দীর্ঘদিন এইডস রোগে আক্রান্ত। এইডস সনাক্ত হওয়ার বিস্তারিত

ফের বিআরটিএ’তে মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে দালাল

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ) চট্টগ্রাম কার্যালয়ে ফের মাথাচাড়া বিস্তারিত

নির্যাতিত নারী-শিশুদের বাতিঘর চট্টগ্রাম ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টার

দোতলা একটি ভবনে অত্যন্ত পরিপাটি করে সাজানো রয়েছে বেশ কিছু বিছানা। বিস্তারিত

শব্দদূষণের মাত্রা রেকর্ডেই সীমাবদ্ধ পরিবেশ অধিদপ্তর

শব্দদূষণের মাত্রা রেকর্ড করার মধ্যেই সীমাবদ্ধ পরিবেশ অধিদপ্তরের বিস্তারিত

বায়ু দূষণে বাড়ছে স্বাস্থ্য ঝুঁকি

যান্ত্রিক যুগের কারণে বাস, ট্রাক, ট্রাক্টর, স্যালো ইঞ্জিনবাহিত যানবাহন বিস্তারিত

থমকে আছে এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের কাজ !

জটিলতার কারণে বন্ধ রয়েছে এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের কাজ। তবে বিস্তারিত

৮ ডুবুরি দিয়ে চলছে ১১ জেলার কার্যক্রম

চট্টগ্রাম বিভাগের ১১ জেলার ৩ কোটি মানুষের জলপথে দুর্ঘটনায় উদ্ধার কাজে বিস্তারিত

সর্বশেষ

সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এসডিজি অর্জন করতে হবে  :  মেয়র নাছির

সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট গোল (এসডিজি) অর্জন করতে হলে দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের বিস্তারিত

দিল্লিতে কারখানায় ভয়াবহ আগুন, নিহত ৪৩

দিল্লির রানি ঝাঁসি রোড এলাকার আনাজ মাণ্ডির একটি কারখানায় রবিবার ভোর ৫টা বিস্তারিত

মেসির হ্যাটট্রিকে বার্সা শীর্ষে

 লা লীগায় মায়োর্ককে ৫-২ গোলে উড়িয়ে চির প্রতিদ্বন্দ্বী রিয়ালকে সরিয়ে বিস্তারিত

বান্দরবানে অবৈধ ইটভাটা বন্ধের দাবিতে মানববন্ধন

বান্দরবানে পাহাড়ের পাদদেশে চাষের জমি দখল করে অবৈধভাবে ইটভাটা পক্রিয়া বিস্তারিত

সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত, এই ওয়েব সাইটের যেকোন লিখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনি