image

আজ, শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯ ,


খেলাপি ঋণের লাগাম টানতে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কমিটি

খেলাপি ঋণের লাগাম টানতে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কমিটি

ফাইল ছবি

খেলাপি ঋণের লাগাম টেনে ধরতে জরুরি বৈঠক করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক; গঠন করা হয়েছে একটি কমিটি।
বিশাল অঙ্কের খেলাপি ঋণ নিয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের নির্দেশে কেন্দ্রীয় ব্যাংক মঙ্গলবার খেলাপি ঋণ বেশি বেড়েছে এমন সাত ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীদের ডেকে এই বৈঠক করেছে।
গভর্নর ফজলে কবিরের সভাপতিত্বে এই বৈঠকে অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সচিব আসাদুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।

সভায় খেলাপি ঋণ বাড়ার কারণ খুঁজতে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম।
যে সাত ব্যাংকের প্রধান image নির্বাহীদের নিয়ে বৈঠকটি হয়েছে, তার চারটি সরকারি ব্যাংক, এগুলো হচ্ছে সোনালী, অগ্রণী, জনতা ও রূপালী ব্যাংক। বাকি তিনটি বেসরকারি ব্যাংক, সেগুলো হচ্ছে  আল-আরাফাহ, ইসলামী ব্যাংক ও ন্যাশনাল ব্যাংক।

বৈঠক প্রসঙ্গে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম  বলেন, “খেলাপি ঋণ বাড়ার কারণে সাত  ব্যাংকের এমডিকে ডাকা হয়েছিল। তারা বলেছেন, অনেকে ঋণ পুনঃতফসিল করেও এখন কিস্তি পরিশোধ করছেন না। এ জন্য খেলাপি ঋণ বেড়ে গেছে।
“বৈঠকে খেলাপি ঋণ বাড়ার কারণ জানতে ও কমিয়ে আনতে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কয়েকটি বিভাগ এ কমিটিতে থাকবে।”

ব্যাংকিং প্রবিধি ও নীতি বিভাগ, অফসাইট সুপারভিশন বিভাগ, ব্যাংক পরিদর্শন বিভাগ ও ফিন্যান্সিয়াল স্ট্যাবিলিটি বিভাগের সমন্বয়ে এই কমিটি গঠন করা হয়েছে।
অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে বাংলাদেশের ব্যাংক খাতে মোট খেলাপি ঋণের পরিমাণ দেড় লাখ কোটি টাকা ছাড়িয়েছে।
বছরের শুরুতে দায়িত্ব নেওয়ার পর অর্থমন্ত্রী মুস্তফা কামাল ঘোষণা দিয়েছিলেন, খেলাপি ঋণ আর ‘এক টাকাও বাড়বে না’।

সেজন্য ঋণ অবলোপনের নীতিমালা শিথিলসহ কিছু পদক্ষেপও নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু অর্থমন্ত্রীর সে কথা ফলেনি, খেলাপি ঋণ বেড়েই চলেছে।

বাংলাদেশ ব্যাংক সোমবার খেলাপি ঋণের হালনাগাদ যে তথ্য প্রকাশ করে, তাতে দেখা যায়,  গত মার্চ শেষে খেলাপি ঋণের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে এক  লাখ ১০ হাজার ৮৭৩ কোটি টাকা, যা মোট বিতরণ করা ঋণের ১১ দশমিক ৮৭ শতাংশ।
মার্চ শেষে ব্যাংক খাতে অবলোপনকৃত খেলাপি ঋণের (রাইট অফ) স্থিতি ছিল ৩৯ হাজার ২৪৮ কোটি টাকা। খেলাপি ঋণের সঙ্গে অবলোপনকৃত খেলাপি ঋণ যোগ করলে বাংলাদেশের ব্যাংক খাতে মোট খেলাপি ঋণের পরিমাণ দাঁড়ায় এক লাখ ৫০ হাজার ১২২ কোটি টাকা।
বছরের পর বছর ধরে ব্যাংক ব্যবস্থায় মন্দ মানে শ্রেণিকৃত খেলাপি ঋণ স্থিতিপত্র (ব্যালেন্স শিট) থেকে বাদ দেওয়াকে ঋণ অবলোপন-রাইট অফ বলে। যদিও এধরনের ঋণ গ্রহীতা পুরো টাকা পরিশোধ না করা পর্যন্ত খেলাপি হিসেবে বিবেচিত হন।

খেলাপি ঋণ বাড়ার এই খবর প্রকাশের পর বেশ চাপের মধ্যে পড়ে বাংলাদেশ ব্যাংক। অর্থমন্ত্রী মুস্তফা কামালও নাখোশ হন।
অর্থমন্ত্রীর নির্দেশেই জরুরি বৈঠকে আয়োজন করা হয় বলে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের এক কর্মকর্তা জানান।
তিনি বলেন, বৈঠকে ব্যাংকগুলোকে যে কোনো উপায়ে চলতি জুন মাসের মধ্যে খেলাপি ঋণ কমিয়ে আনার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

সিভয়েস/আই

আরও পড়ুন

মাইনিং পোর্ট ও ফিশ হারবার করবে চট্টগ্রাম বন্দর

মাইনিং পোর্ট ও ফিশ হারবার নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে চট্টগ্রাম বন্দর বিস্তারিত

ঈদ শেষে এখনও জমে উঠেনি খাতুনগঞ্জ

কিছু আড়ত খুললেও, বন্ধ রয়েছে বেশ কিছু আড়ত। নেই ক্রেতার সমাগম। অলস সময় পার বিস্তারিত

চামড়া কিনতে ৬০৫ কোটি টাকা ঋণ দেবে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক

চামড়া খাতে দেয়া ঋণ সহজে আদায় হয় না। তারপরও শিল্পের স্বার্থে কোরবানির পশুর বিস্তারিত

বিশ্বের ব্যস্ত বন্দরের তালিকায় ৬৪তম চট্টগ্রাম

চট্টগ্রাম বন্দরের স্থান এখন বিশ্বের ১০০ ব্যস্ত বন্দরের মধ্যে ৬৪তম। এক বিস্তারিত

নগদ অ্যাপ এখন আইওএস প্ল্যাটফর্মে

ডাক বিভাগের ডিজিটাল আর্থিক সেবা নগদ'র অ্যাপ জনপ্রিয় অপারেটিং সিস্টেম বিস্তারিত

মেশিনারি পণ্যের ঘোষণায় মদ বিয়ার আমদানি

চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে খালাস করার সময় চট্টগ্রাম কাস্টমসের আনস্টাফিং শাখার বিস্তারিত

চট্টগ্রামে যানজটের কারণ বন্দর নয় দাবি চেয়ারম্যানের

বন্দর নয় চট্টগ্রামে যানজটের একমাত্র কারণ বৃষ্টি উল্লেখ করে নগরীর বন্দর বিস্তারিত

চাকরির পেছনে না ছুটে বিনিয়োগকারী হোন : চেম্বার সভাপতি 

চট্টগ্রাম চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম বলেছেন, আমাদের ছেলে মেয়েরা পড়ালেখা বিস্তারিত

চট্টগ্রাম চেম্বারের নতুন পরিচালকদের দায়িত্ব গ্রহণ

দি চিটাগাং চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির ২০১৯-২১ মেয়াদের জন্য বিস্তারিত

সর্বশেষ

রোহিঙ্গা প্লাবনের দুই বছরের খতিয়ান

দুই বছর আগে এই আগস্ট মাসেই সেনাবাহিনীর হত্যা-ধর্ষণ-নির্যাতনের মুখে বিস্তারিত

সাতক্ষীরায় ডেঙ্গু জ্বরে গৃহবধূর মৃত্যু

সাতক্ষীরায় ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। বিস্তারিত

টেকনাফে রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের গুলিতে যুবলীগ নেতা নিহত

টেকনাফে বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে ওমর ফারুক (৩০) নামের এক যুবলীগ নেতাকে হত্যা করেছে বিস্তারিত

‘মানুষের শান্তি ফিরিয়ে আনতেই ভগবান শ্রীকৃষ্ণের আবির্ভাব’

বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, ভগবান বিস্তারিত

সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত, এই ওয়েব সাইটের যেকোন লিখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনি

close