image

আজ, রবিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৯ ,


প্রশাসনের নীরবতায় অবৈধ ৬ লক্ষ ঘনফুট পাথর মজুদ

লামা-আলীকদমে থামছে না অবৈধ পাথর উত্তোলন

লামা-আলীকদমে থামছে না অবৈধ পাথর উত্তোলন

লামা-আলীকদম এলাকায় অবৈধ পাথর মজুদ করছে শ্রমিকেরা

প্রশাসনের উদাসীনতা ও পরোক্ষ সহায়তায় লামা-আলীকদমে বিভিন্ন নদী, ঝিরি, খাল, ছড়া ও ঝর্ণা হতে পানির উৎসসমূহ নষ্ট করে অবৈধভাবে পাথর উত্তোলন করা হচ্ছে। প্রায় ৬ লক্ষাধিক ঘনফুট পাথর পাচারের জন্য মজুদ করা হয়েছে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে। বান্দরবান জেলা প্রশাসন থেকে কোন প্রকার সরকারি অনুমোদন বা ইজারা না দিলেও অবৈধ পাথর উত্তোলন বন্ধ করতে কোন উদ্যোগ নিচ্ছে না স্থানীয় প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্টরা।

লামা-আলীকদমের বেশ কয়েকটি স্থানে বিশাল বিশাল মজুদ করে উত্তোলনকৃত এসব অবৈধ পাথর রাখা হয়েছে। বিষয়টি সবার জানা থাকলেও একে অন্যের দায়িত্ব বলে বিষয়টি এড়িয়ে গিয়ে image পাথর ব্যবসায়ীদের সুযোগ সৃষ্টি করে দিচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।     

বান্দরবান জেলা প্রশাসক মো. দাউদুল ইসলাম জানিয়েছেন, চলতি বছরে লামা-আলীকদমে পাথর তোলার অনুমোদন বা ইজারা দেয়া হয়নি। অবৈধ পাথর ব্যবসায়ী ও জড়িতদের আইনের আওতায় আনা হবে।
  
এলাকাবাসী বলছে, লামা-আলীকদম উপজেলায় বিভিন্ন স্থানে রাতের আধাঁরে পাচারের জন্য মজুদ করা হয়েছে লাখ লাখ ঘনফুট অবৈধ পাথর। বিশেষ করে লামার ইয়াংছা কাঠাঁল ছড়া, বনপুর, হরিণঝিরি এবং আলীকদমের ১০ কিলো, ৬ কিলো, রেপারপাড়ি, চৈক্ষ্যং আবাসিক এলাকায় বিশাল বিশাল পাথরের মজুদ করা হয়েছে। পাহাড়-খাল-নদী-ছড়া খুঁড়ে উত্তোলনকৃত এসব অবৈধ পাথর থেকে কোন রাজস্ব পাচ্ছেনা সরকার। সামনে বর্ষা মৌসুম। তাই ইতোমধ্যে পাথর ব্যবসায়ীরা কোয়ারী ও দূর্গম জায়গা থেকে পাথর আহরণ করে গাড়ির পয়েন্টে এনে রাখছে। অজ্ঞাত কারণে বিপুল পরিমাণের এই মজুদকৃত পাথর নিয়ে প্রশাসনের কোন পদক্ষেপ লক্ষ্য করা যাচ্ছেনা। 

সরজমিনে গিয়ে স্থানীয় পাহাড়ি-বাঙ্গালিদের কাছ থেকে জানা যায়, লামা উপজেলার ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়নের ইয়াংছা বাজার, কাঁঠালছড়া, ইয়াংছা মেম্বার পাড়া, গুলির মাঠ, শামুক ঝিরি, বদুর ঝিরি, মিরিঞ্জা, বনপুর বাজার, ছমুখাল, পাইক ঝিরি, ওয়াক্রা পাড়া, খ্রিস্টান পাড়া, মরার ঝিরি, চচাই পাড়া, কেরানী ঝিরি, কইতরের ঝিরি, বুদুম ঝিরি, চিনির ঝিরি, গয়ালমারা, বালস্ট কারবারী পাড়া ঝিরি, জোয়াকি পাড়া, বাকঁখালী ঝিরি, হরিণ ঝিরি, রবাট কারবারী পাড়া ঝিরি, বালুর ঝিরি, আলিক্ষ্যং ঝিরি হতে নির্বিচারে পাথর তুলে মজুদ করা হয়েছে।

এছাড়া গজালিয়া ইউনিয়নের ব্রিকফিল্ড, নিমন্দ মেম্বার পাড়া, মিন ঝিরি, ফাইতং রাস্তার মাথা, আকিরাম পাড়া, নাজিরাম পাড়া, ফাইতং ইউনিয়নের মিজ ঝিরি অংশ, লম্বাশিয়া, মেহুন্ধা খাল, শিবাতলী পাড়া এবং সরই ইউনিয়নের লুলাইং, লেমুপালং এ কয়েক হাজার স্তুপে লক্ষাধিক অবৈধ পাথর জমা করা হয়েছে। বর্তমানে লামা উপজেলায় পাচারের জন্য ৪ লক্ষাধিক পাথর মজুদ করা হয়েছে। এখান থেকে প্রতিরাতে চুরি করে পাথর পাচার হচ্ছে বলে জানায় স্থানীয়রা। পাথর উত্তোলন, পাচার করতে গিয়ে ব্যবসায়ীরা পানির উৎস নদী, খাল, ছড়াগুলো ধ্বংস করছে। এছাড়া ভারি ট্রাকে করে পরিবহণ করতে গিয়ে গ্রামীণ রাস্তাঘাট ভেঙ্গে নষ্ট করছে। এতে করে এ অঞ্চলের সাধারণ মানুষের জীবনযাত্রা দুর্বিসহ হয়ে উঠছে। 


 
অপরদিকে, আলীকদম উপজেলার ২৮৭ নম্বর তৈন মৌজার ছোট ভরি, বড় ভরি, ঠান্ডা ঝিরি, মাংগু ঝিরির শাখা প্রশাখা, আলীকদম-থানচি সড়ক, চৈক্ষ্যং ইউনিয়নের পাট্টাখাইয়া সড়কের পথে পথে পাথরের স্তুপ, চৈক্ষ্যং ইউনিয়নের ভরিখাল, কলার ঝিরির শাখা প্রশাখা, রেপারপাড়া এলাকার ডপ্রু ঝিরি, চিনারি দোকান এলাকার ভরিমুখ, মমপাখই হেডম্যান পাড়া, থানচি সড়কের ১০ কিলো, ৬ কিলো থেকে সরকারি অনুমতি ছাড়াই পাথর আহরণ ও পাচার করছে কয়েকটি সিন্ডিকেট। এসব পয়েন্টে কমপক্ষে ২ লক্ষাধিক ঘনফুট পাথর মজুদ করা হয়েছে। 

স্থানীয়রা জানায়, এখানে উত্তোলনকৃত অধিকাংশ পাথর বন বিভাগের রিজার্ভ এলাকা থেকে তোলা। পাথর সিন্ডিকেটের সাথে সরকারি কিছু কর্মচারী ও স্কুল শিক্ষক জড়িত রয়েছে। এছাড়া সরকারি বড় একটি উন্নয়ন কাজকে পুঁজি করে পাথর ব্যবসায়ীরা লামা-আলীকদমে অবৈধ পাথর ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছে বলেও অভিযোগ উঠেছে। অবৈধ পাথর ব্যবসায়ীরা প্রায় সময় সরকারের বিভিন্ন বিভাগের দায়িত্বরত কর্মকর্তাদের নাম ভাঙ্গিয়েও পাথর নিয়ে যাওয়ার অভিযোগ উঠেছে। 

অবৈধ পাথর মজুদ ও উত্তোলনের বিষয়ে লামা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও আলীকদমের অতিরিক্ত দায়িত্বরত ইউএনও নুর-এ জান্নাত রুমির সাথে যোগাযোগ করলে তিনি পরিবেশ অধিদপ্তরকে জানানোর অনুরোধ জানান।

পরিবেশ অধিদপ্তরের বান্দরবানের উপ-পরিচালক একেএম সামিউল আলম বলেন, আমরা বান্দরবানে নতুন অফিস সেটআপ করছি। দ্রুত লামা-আলীকদমের অবৈধ পাথরের বিষয়ে অভিযান চালানো হবে। 

সিভয়েস/এএস/এসএ
 

আরও পড়ুন

মিরসরাইয়ে পাহাড়ি ঝর্ণায় ৪ বছরে নিহত ১০, আহত শতাধিক

চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে বিভিন্ন পাহাড়ি প্রাকৃতিক ঝর্ণা দেখতে গিয়ে বিস্তারিত

এক লাখ চামড়া রাস্তায়, ট্যানারি মালিকদের দুষছেন আড়তদাররা

কোরবানির ঈদে চট্টগ্রামে প্রায় এক লাখ পিস কাঁচা চামড়া নষ্ট হওয়ার পেছনে বিস্তারিত

পর্যটকের পদভারে মুখরিত কক্সবাজার

ঈদের ছুটিতে পর্যটকের পদভারে মুখরিত কক্সবাজার। ছুটির ৪র্থ দিনেও লাখো বিস্তারিত

চিড়িয়াখানা ও ফয়’স লেকে পর্যটকদের বাঁধভাঙা আনন্দ

ঈদ মানেই খুশি, ঈদ মানেই আনন্দ। সকাল থেকে বৃষ্টির বিড়ম্বনা থাকলেও থামাতে বিস্তারিত

মেয়র পদে প্রার্থী হতে চান শাহাদাত-বক্কর

আগামী চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ-বিএনপির বিস্তারিত

ব্যাপক কদর বেড়েছে গাছের গুঁড়ির, বিক্রি জমজমাট

কোরবানি পশুর মাংস কাটার বিভিন্ন সরঞ্জামাদির পাশাপাশি কদর বেড়েছে গাছের বিস্তারিত

জন্মশহর চট্টগ্রামে স্থাপন হচ্ছে আইয়ুব বাচ্চুর ‘রূপালি গিটার’  

জন্মশহর চট্টগ্রামের মাটিতে শুয়ে আছেন জনপ্রিয় ব্যান্ডতারকা আইয়ূব বাচ্চু। বিস্তারিত

কমিটি দুই সদস্যের, তারাও স্বেচ্ছাচারী!

মেয়াদোত্তীর্ণ দুই সদস্যের কমিটি দিয়েই চলছে চট্টগ্রাম উত্তর জেলা বিস্তারিত

ট্যানারি না থাকায় বিপাকে চামড়া ব্যবসায়ীরা

কুরবানির ঈদকে সামনে রেখে পশুর চামড়া সংগ্রহে প্রস্তুতি নিয়েছে চামড়া বিস্তারিত

সর্বশেষ

রাউজানে পাঠাবলি দিতে গিয়ে আহত যুবক

রাউজানে সনাতন ধর্মাবলস্বীদের মনসাপূজার পাঠাবলি দেয়ার সময় আদিনাথ দেব (২৭) বিস্তারিত

অতিরিক্ত ডিআইজি পদে ২০  এসপিকে পদোন্নতি

২০ পুলিশ সুপারকে (এসপি) পদোন্নতি দেয়া হয়েছে। বিসিএস পুলিশ ক্যাডারের এই ২০ বিস্তারিত

চট্টগ্রাম-নাজিরহাট রুটে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক

চট্টগ্রাম-নাজিরহাট রুটে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক হয়েছে। সেতু দেবে যাওয়ার বিস্তারিত

বঙ্গবন্ধু বঙ্গ-ধাত্রীর শ্রেষ্ঠ সন্তান

বঙ্গবন্ধু, যার আরেক নাম বাংলাদেশ। টেকনাফ থেকে তেঁতুলিয়া। উর্বরতার পলিতে বিস্তারিত

সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত, এই ওয়েব সাইটের যেকোন লিখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনি

close