image

আজ, বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০১৯ ,


অস্ত্র মামলায় পেকুয়া উপজেলা চেয়ারম্যানের ২১ বছরের জেল

অস্ত্র মামলায় পেকুয়া উপজেলা চেয়ারম্যানের ২১ বছরের জেল

অস্ত্র মামলায় কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলার নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলমকে ১৪ বছরের জেল দিয়েছেন আদালত। রায় ঘোষণার পর আদালতে উপস্থিত জাহাঙ্গীর আলমকে পরে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। 

র‌্যাবের দায়ের করা অস্ত্র মামলায় একটিতে ১৪ বছর ও অন্যটিতে ৭ বছরের জেল দেয় আদালত।

জাহাঙ্গীর পেকুয়া উপজেলা যুবলীগেরও সভাপতি। এছাড়া তিনি কক্সবাজার জেলা পরিষদের সাবেক সদস্য ছিলেন। তিনি আওয়ামী লীগ দলীয় মনোনীত প্রার্থীকে পরাজিত করে বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (৯ মে) দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারিক হাকিম খোন্দকার হাসান মো. ফিরোজ এ রায় দেন বলে জানান কক্সবাজার আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) মমতাজ আহমদ।

রায় ঘোষণার সময় জাহাঙ্গীরসহ মামলার অন্যসব আসামি ( ৩ ভাই ) আদালতে উপস্থিত ছিলেন বলে জানান রাষ্ট্রপক্ষের এ আইনজীবী।

মামলার রায়ের বিবরণীর বরাত দিয়ে পিপি মমতাজ বলেন, গত ২০১৭ সালের ১৩ আগস্ট জাহাঙ্গীর আলমের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে র‌্যাবের একটি দল ৩ টি আগ্নেয়াস্ত্র, ১০ টি গুলি ও নগদ ১৭ লাখ টাকা উদ্ধার করে। এসময় বাড়ীতে অবস্থানকারী জাহাঙ্গীর ও অপর ৩ ভাইকে আটক র‌্যাব সদস্যরা। এ ঘটনায় র‌্যাব পেকুয়ায় থানায় আটকদের বিরুদ্ধে অস্ত্র মামলা দায়ের করে।

রাষ্ট্রপক্ষের এ আইনজীবী বলেন, মামলা দায়ের করার পর থেকে দীর্ঘ ২১ মাস বিচারকার্য চলে। মামলার দীর্ঘ শুনানি ও সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আসামিদের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বৃহস্পতিবার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারিক হাকিম এ রায় প্রদান করেন। বিচারিক হাকিম মামলার প্রধান আসামি ও পেকুয়া উপজেলার সদ্য শপথ গ্রহণকারী চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলমকে ১৪ বছরের সশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দিয়ে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

পিপি মমতাজ বলেন, তবে সাজাপ্রাপ্ত আসামি জাহাঙ্গীর মামলার শুরু থেকে ঘটনাটিকে পরিকল্পিত ও ষড়যন্ত্রমূলক বলে দাবি করে আসছিলেন। তার (জাহাঙ্গীর) দাবি, তার রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের সঙ্গে যোগসাজশ করে র‌্যাব পরিকল্পিতভাবে অস্ত্র উদ্ধারের এ ঘটনা ঘটিয়েছিল। 

কিন্তু আসামিদের দাবির স্বপক্ষে যথাযথ যুক্তিসহ প্রমাণাদি আদালত উপস্থাপন করতে ব্যর্থ হয়েছে বলে বিচারিক হাকিম এ রায় দিয়েছেন বলে মন্তব্য রাষ্ট্রপক্ষের এ আইনজীবীর।

সিভয়েস/এএস

আরও পড়ুন

ঈদ: কক্সবাজারে আজ থেকে বিশেষ নিরাপত্তা ব্যবস্থা 

ঈদের কেনাকাটা করতে আসা ক্রেতা ও ব্যাংকের গ্রাহকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে বিস্তারিত

ধর্ষণের শিকার কিশোরীর আত্মহত্যার চেষ্টা, ধর্ষক গ্রেপ্তার

কক্সবাজারের পেকুয়ায় ধর্ষণের শিকার হয়ে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে ১৪ বিস্তারিত

পেকুয়ায় মালয়েশিয়াগামী ৬৭ রোহিঙ্গা আটক

কক্সবাজারের পেকুয়ায় মালয়েশিয়াগামী ৬৭ রোহিঙ্গা নারীপুরুষ ও শিশুকে আটক বিস্তারিত

টেকনাফে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের তালিকাভুক্ত ইয়াবা ব্যবসায়ী নিহত

কক্সবাজারের টেকনাফের শাহপরীরদ্বীপে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে বিস্তারিত

টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ইয়াবা কারবারি নিহত, অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার

কক্সবাজারের টেকনাফে পুলিশ-বিজিবির যৌথ অভিযানের সময় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ বিস্তারিত

কক্সবাজার থেকে মালয়েশিয়াগামী ২৩ রোহিঙ্গা আটক

কক্সবাজার শহরের দরিয়া নগরের শুকনাছড়ি থেকে ২৩ জন রোহিঙ্গাকে আটক করেছে বিস্তারিত

কক্সবাজারে বন্দুকযুদ্ধে মানবপাচারকারী দুই রোহিঙ্গাসহ নিহত ৩

কক্সবাজারের টেকনাফের শামলাপুর ও শহরের কাটা পাড়ার এলাকায় পুলিশের সাথে পৃথক বিস্তারিত

কক্সবাজারে আগুনে পুড়ে শিশুসহ ২ জনের মৃত্যু

কক্সবাজার শহরের কলাতলীতে আগুনে পুড়ে দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। এসময় তিনটি ঘর বিস্তারিত

চকরিয়ায় সামাজিক বনায়ন উপকারভোগীদের মধ্যে চেক বিতরণ

কক্সবাজারের চকরিয়ায় উপকারভোগীদের সামাজিক বনায়নের লভ্যাংশের চেক বিতরণ বিস্তারিত

সর্বশেষ

প্রেম’স কালেকশনে এক্সক্লুসিভ প্রদর্শনী নিয়ে ফ্যাশন শো

নগরীর জিইসি মোড়ে অবস্থিত ইউনুস্কো সেন্টারের ষষ্ঠ তলায় আসন্ন ঈদকে ঘিরে বিস্তারিত

বেপরোয়া ট্রাক চালকের ভুয়া লাইসেন্স!

নগরীর টাইগারপাস মোড় থেকে ধাওয়া দিয়ে একটি দ্রুত গতির ট্রাক ও চালককে আটক বিস্তারিত

মেঝেতে ফলের দানা ফেলায় চিকিৎসা পায়নি শিশু!

শিশুর বয়স এক বছরও পূর্ণ হয়নি। হামাগুঁড়ি দেয় এখনো। ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে বিস্তারিত

রুমায় ভাল্লুকের আক্রমণে আহত ১

রুমায় ভাল্লুকের আক্রমণে আহত ১

বান্দরবান প্রতিনিধি

জঙ্গলে সবজি  সংগ্রহ করতে গিয়ে মা ভাল্লুকের আক্রমণে গুরুতর আহত হয়েছে বিস্তারিত

সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত, এই ওয়েব সাইটের যেকোন লিখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনি

close