image

আজ, বুধবার, ১৯ জুন ২০১৯ ,


পুণ্যময় তীর্থস্থান বুড়া মসজিদ

পুণ্যময় তীর্থস্থান বুড়া মসজিদ

ছবি : সিভয়েস

চট্টগ্রাম শহরের অদূরে কর্ণফুলী নদীর পূর্ব পাড়ে বোয়ালখালী। আর এ বোয়ালখালী উপজেলার শ্রীপুর খরণদ্বীপ ইউনিয়নে অবস্থিত ঐতিহ্যবাহী শ্রীপুর বুড়া মসজিদ। এ মসজিদে দেশ-বিদেশ থেকে ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের সমাগম ঘটে বরকত, ফজিলত ও তাৎপর্যপূর্ণের আশায়।

জাতি-ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে সারাদেশের মানুষের কাছে পুণ্যময় তীর্থস্থান হিসেবে পরিচিত এ বুড়া মসজিদ। প্রায় তিনশ’ বছর আগে এ মসজিদ প্রতিষ্ঠা করা হয় বলে জনশ্রুতি রয়েছে। তবে মসজিদটি ঠিক কত সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল তার সঠিক দিনক্ষণ জানা যায়নি।

মোঘল আমলের শেষের দিকে প্রথম শনের ছাউনি দিয়ে মসজিদটি গড়া হয়। জনশ্রুতি রয়েছে নামাজের সময় হলে এ মসজিদে গায়েবী আজান হতো।

চট্টগ্রামের তৎকালিন প্রশাসক থানাদার ওয়াসিন চৌধুরী এ মসজিদ প্রতিষ্ঠা করেন। তাঁর দাদা শেখ নাছির উদ্দিন তৎকালীন অবিভক্ত ভারতের গৌড় এলাকা থেকে এ এলাকায় ইসলাম প্রচারের উদ্দেশ্যে আগমন করেছিলেন। শেখ নাছির উদ্দিন এলাকার মুসল্লীদের পাঞ্জাগানা নামায আদায়ের সুবিধার্থে এ মসজিদ প্রতিষ্ঠার জন্য বলেন।

ওয়াসিন চৌধুরীর পিতা একজন ইবাদত গুজার ব্যক্তি ছিলেন। তিনি ইবাদত বন্দেগীতে এতই মশগুল থাকতেন যে, পারিপার্শ্বিক অবস্থার কোন খবর রাখতেন না। বুড়ো বয়সে মসজিদে নামাজ-যিকির-আজকারে দিন রাত কাটিয়ে দিতেন। দিনের পর দিন কেটে যেত তাঁর আধ্যাত্মিক সাধনায়।

এতই পরহেজগার ছিলেন যে, সবাই বুড়া হুজুর নামে ডাকত। ইবাদত করতে করতে তিনি একদিন এই মসজিদ থেকে গায়েব হয়ে যান। পরবর্তীতে তাঁর কোন সন্ধান কেউ পাননি বলে কথিত আছে। তাই তাঁর নামানুসারে এটি ‘বুড়া মসজিদ’ নামে পরিচিতি লাভ করেন।

জানা গেছে, অল্প ক’জন মুসল্লী নামায পড়ার মত জায়গা নিয়ে ছন পাতার বেড়া এবং উপরে দু’নালি ছন দিয়ে মসজিদের প্রথম ঘর নির্মিত হয়। প্রতি বছর ছাউনি ও বেড়া পরিবর্তন করে ২০-২৫ বছর চলে এ মসজিদের কার্যক্রম। সে সময়ে সাপ, বাঘ ও জঙ্গলময় ছিল এই এলাকা। ফলে বাঘের ভয়ে ও ঝোঁপ-ঝাঁড়ের মাঝে অবস্থিত হওয়ায় এ মসজিদে মুসল্লীরা রাতে নামায আদায় করতে পারতেন না। নিরাপদ দুরত্বে থেকে মুসল্লীরা আযান দিয়ে চলে যেত।

পরে চারপাশে বাঁশের বেড়া এবং উপরে ছনের ছাউনি দিয়ে ১০-১৫ হাত লম্বা ও চওড়া করে মসজিদ নির্মাণ করা হয়। এভাবে ছিলো বহু বছর।

১৮৮৬ সালে বেড়া ও ছনের ছাউনি ঘর ভেঙ্গে যায় প্রবল ভূমিকম্পের কারণে। ভাঙা অবস্থায় জোড়া তালি দিয়ে আরো ২০-২৫ বছর চলে এ মসজিদের কার্যক্রম। পরে স্থানীয় লোকজন মাটির দেয়াল তুলে পুনঃনির্মাণ করেন এ মসজিদ। এভাবে ৪-৫ বার নির্মাণ করা হয়। প্রায় ১০০ বছর পূর্বে মসজিদের কিয়দংশ পাকাকরণ করা হয়।

১৯৪০ সালে মসজিদের পুরাতন ভিত্তি ভেঙে নতুন করে ছাদ জমিয়ে পাকাকরণ করা হয়। এই ইমারত এখনও পর্যন্ত মসজিদের মধ্যখানে বহমান আছে। ১৯৭৪ সালে ৫-৬’শ জন মুসল্লী নামায আদায় করার ব্যবস্থা করে মসজিদ সংস্কার ও সম্প্রসারণ করা হয়। ১৯৮৬ সালের দিকে দ্বিতীয় তলায় উন্নীত করা হয় এ মসজিদ। ১৯৭৫ সালের দিকে এ মসজিদের পাকা ভবনের গেইট নির্মিত হয়।

বলা বাহুল্য, এই মসজিদে প্রতি শুক্রবার জু’মা নামাজে এলাকার মুসল্লি ছাড়া আশেপাশের প্রত্যন্ত এলাকা থেকেও মুসল্লিরা এসে নামাজ আদায় করেন। এখনো এ রেওয়াজ চালু আছে।

-সিভয়েস/এসএ/আরএইচ

 

আরও পড়ুন

কক্সবাজারে মাদক পাচারকারীর হাতে হয়রানির শিকার হচ্ছে পর্যটক

ফেনসিডিলের বোতল হাতে যুবকটির নাম মো. সুমন (২৮)। তিনি পেশায় রিকশাচালক হলেও বিস্তারিত

এবার ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্তির দাবিতে নগরজুড়ে পোষ্টার

চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্তির দাবিতে এবার পোষ্টার সাঁটানো বিস্তারিত

এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে প্রকল্পে ঠিকাদার নিয়োগ অনিয়ম অনুসন্ধানে দুদক

চট্টগ্রামে বহুল আলোচিত এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে প্রকল্পের ঠিকাদার নিয়োগে বিস্তারিত

চট্টগ্রাম-দোহাজারী রেলপথে বেড়েছে যাত্রী, বগি বাড়ানোর দাবি

চট্টগ্রাম-দোহাজারী রেলপথে বেড়েছে যাত্রী। সে সাথে বেড়েছে আয়। এ পথে ৫টি বগি বিস্তারিত

মাটিরাঙ্গার সাপমারায় বিশুদ্ধ পানি সংকটে ৪০ পরিবার

মাটিরাঙ্গা উপজেলার সদর ইউনিয়নের দুর্গম পশ্চাৎপদ সাপমারা গ্রামের ৪০টি বিস্তারিত

ভিন্ন রূপে চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানা, দর্শনার্থীর ঢল

চট্টগ্রাম মহানগরীর অন্যতম প্রধান বিনোদন কেন্দ্র চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় বিস্তারিত

সমুদ্রে মাছ ধরা বন্ধ: ৫০ হাজার জেলে পরিবারে নেই ঈদের আমেজ

বঙ্গোপসাগরে মৎস্যসহ প্রাণিজ সম্পদ সুরক্ষায় ২০ মে থেকে ২৩ জুলাই পর্যন্ত ৬৫ বিস্তারিত

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে লাকড়ির পরিবর্তে বাড়ছে গ্যাসে ব্যবহার, রক্ষা পাবে বনাঞ্চল

খায়ের হোসেনের স্মৃতিতে এখনো ভাসে-খাবার রান্না করা মানেই লাকড়ি যোগাড় করতে বিস্তারিত

নগরীতে বিআরটিএ'র অভিযান, অতিরিক্ত ভাড়া ফিরে পেলেন যাত্রীরা

নগরীর অলংকার, বিআরটিসি, গরীব উল্লাহ শাহ মাজার এলাকায় শ্যামলী, ইউনিকসহ বিস্তারিত

সর্বশেষ

চট্টগ্রামে সাড়ে চার হাজার মামলা বিচারাধীন

চট্টগ্রামে  ৪ হাজার ৬৩৪টি মামলা বিচারাধীন রয়েছে। মঙ্গলবার (১৮ জুন) জাতীয় বিস্তারিত

প্রাণের ঘি’সহ ২১ পণ্যের বিরুদ্ধে মামলা

প্রাণ প্রিমিয়াম গাওয়া ঘি’সহ নিম্নমানের ২১ পণ্যের বিরুদ্ধে মামলা করা বিস্তারিত

বিশ্বের ক্রিকেট বিশ্লেষকদের প্রশংসায় ভাসছে বাংলাদেশ

সোমবার রাতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুর্দান্ত এক জয় পেয়েছে বাংলাদেশ বিস্তারিত

চট্টগ্রাম বইমেলা- ২০২০ আয়োজনে গঠিত হচ্ছে পরিকল্পনা কমিশন

সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিনের একান্ত উদ্যোগে সার্বজনীন ও নান্দনিক আয়োজনের বিস্তারিত

সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত, এই ওয়েব সাইটের যেকোন লিখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনি

close