image

আজ, বুধবার, ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ ,


শীতকালে রূপ ও সৌন্দর্য্য বাড়ছে ‘মিনি সুন্দরবনের’

শীতকালে রূপ ও সৌন্দর্য্য বাড়ছে ‘মিনি সুন্দরবনের’

বিশাল সাগর আর এক দিকে বাঁকখালী নদীর মোহনা। এর মাঝখানে প্রায় ৬০০ হেক্টর জমিতে বাইন ও কেওড়াসহ নানা প্রজাতির শ্বাসমূলী উদ্ভিদের ম্যানগ্রোভ বন। গাছের মাথা ছুঁয়ে উড়ে যাওয়া বকের সারি, পরিযায়ী পাখি কিংবা বন্য শূকর। দেখে মনে হবে এ বুঝি আরেক সুন্দরবন।

কক্সবাজার কস্তুরাঘাট থেকে মহেশখালী-কুতুবদিয়া ও সোনাদিয়া উপকূলে যাওয়ার পথে বাঁকখালী নদীর মোহনায় দেখা মেলে এ বনের। স্থানীয় ও পর্যটকের কাছে এটি ‘মিনি সুন্দরবন’ হিসেবে পরিচিত। এই বনে শীতকালে বিভিন্ন প্রজাতির অতিথি পাখি আসে। বিশ্বের বিলুপ্তপ্রায় অনেক পাখির আভাসস্থল এ বন।

এমন সবুজ আর প্রাণ প্রজাতির সম্মিলন দেখতে যায় কক্সবাজার সমুদ্র সৈকতের নুনিয়াছড়া পয়েন্টে। সবুজ আর প্রাণীর এই অপূর্ব সম্মিলনকে কাজে লাগাতে চায় বন ও পরিবেশ অধিদপ্তর। পরিবেশ অধিদপ্তর কক্সবাজার কার্যালয়ের উদ্যোগে ঝড়-জলোচ্ছ্বাসের এ বনকে পর্যটকদের কাছে আকৃষ্ট করতে বনের পাশে নির্মাণ করা হয়েছে পর্যবেক্ষণ টাওয়ার ও বিনোদন কেন্দ্র। ২০১৫ সালের আগষ্ট মাসে পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের সচিব ড.কামাল উদ্দিন আহমদ আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন এই পর্যবেক্ষণ টাওয়ার। এরপর থেকে রূপ ও সৌন্দর্য্য বেড়েই চলছে ‘মিনি সুন্দরবনের’। যা কক্সবাজার পর্যটনে যোগ হয়েছে নতুন মাত্রা।

পরিবেশবাদী সংগঠন ‘সেভ দ্যা নেচার অব বাংলাদেশের চেয়ারম্যান আ ন ম মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন, অনেকটা সুন্দর বনের আদলে গড়ে উঠা কক্সবাজারের এ সুন্দরবনকে রক্ষার মধ্য দিয়ে একদিকে যেমন জীববৈচিত্র্য সংরক্ষিত হবে, অপরদিকে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য উপভোগের জন্য পর্যটনের একটি নতুন স্পট যোগ হয়েছে। প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য উপভোগ করতে ভ্রমণপ্রেমীরা এই মিনি সুন্দরবনে আসতে পারে। তবে পর্যটকদের আকর্ষণের জন্য প্রচারণা চালাতে হবে।

নুনিয়াছড়া ইসিএ ব্যবস্থাপনা বহুমূখী সমবায় সমিতির সভাপতি মো. আলম জানান, পর্যবেক্ষণ টাওয়ারের মাধ্যমে পর্যটকরা স্থানীয় ও পরিযায়ী পাখি এবং নানাবিধ প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য অবলোকন করতে পারে। পাখি ও বন্যপ্রাণী সনাক্তকরণ ও জ্ঞান অর্জন করতেও অনেকেই আসেন এখানে। এছাড়া স্কুল কলেজের শিক্ষার্থীদের জীববৈচিত্র্য রক্ষায় সচেতনতা সৃষ্টি হবে এ বন থেকে। প্রতিদিন বিকালে স্থানীয় ও অনেক পর্যটক টাওয়ারে উঠে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য উপভোগ করতে ঢল নামে।

পরিবেশ অধিদপ্তর কক্সবাজার কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক সাইফুল আশ্রাব জানান, জলবায়ু পরিবর্তন এবং পরিবেশ ধ্বংসের কারণে গত কয়েক বছরে বহু প্রজাতির প্রাণী বিলুপ্ত হয়েছে। এ কারণে এমন বন সৃজনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। গত তিন বছরে গাছের উচ্চতা অনেক বেড়েছে। এতে সুন্দরবনের রূপ ও সৌন্দর্য্যও বাড়ছে। পর্যায়ক্রমে এ বনে নির্মাণ করা হবে কয়েকটি ছোট ছোট বিনোদন কেন্দ্র।

তিনি বলেন, মিনি সুন্দরবন বা এ প্যারাবনে ২০৬ প্রজাতির পাখির বিচরণ রয়েছে। এর মধ্যে দেশী ১৪৯ ও ৫৭ প্রজাতির অতিথি পাখি রয়েছে। বিশ্বের বিলুপ্তপ্রায় অনেক পাখিও এই বনে দেখা যায় এখন। পর্যবেক্ষণ টাওয়ারের মাধ্যমে এই মিনি সুন্দরবন দেখতে আসা পর্যটকদের কাছ থেকে নামমাত্র টিকিটের মূল্য নেয়া হবে। এছাড়া বনে বানর, শামুক-ঝিনুক, কাঁকড়া, কাছিম ও চিংড়িসহ বহু প্রজাতির সরীসৃপ প্রাণীর দেখা মেলে।

 

-সিভয়েস/আরএইচ

আরও পড়ুন

পেকুয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১

কক্সবাজারের পেকুয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় আবুল হাশেম (৫৮) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু বিস্তারিত

মহেশখালীতে মাদ্রাসা ছাত্র খুন, শিক্ষকসহ আটক ২

মহেশখালী উপজেলার মাতারবাড়ি ইউনিয়নের মগডেইল এলাকায় মোহাম্মদ এমরান(১২) নামে বিস্তারিত

 উখিয়া-টেকনাফে নির্বাচনকে ঘিরে বাড়ছে উত্তাপ আর শঙ্কা

জাতীয় নির্বাচন যতই ঘনিয়ে আসছে উখিয়া-টেকনাফে প্রচার-প্রচারণার পাশাপাশি ততই বিস্তারিত

টেকনাফ পৌরসভার ‘মেয়র শিক্ষা বৃত্তি’ সম্পন্ন

আজ সোমবার(১৭ ডিসেম্বর) সকাল ১০টার দিকে টেকনাফ উপজেলা আদর্শ কমপ্লেক্স কেজি বিস্তারিত

ঈদগড় থেকে নিখোঁজ কিশোরী উদ্ধার

মুঠোফোনে প্রেমের সূত্র ধরে প্রেমিক আল আমিনের (২৫) সাথে বিয়ের প্রস্তাবে রাজী বিস্তারিত

সাংবাদিকদের সাথে হাসিনা আহমেদের মতবিনিময়

চকরিয়া-পেকুয়ায় কর্মরত সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করেছেন কক্সবাজার-১ বিস্তারিত

মহেশখালীতে বর্ণাঢ্য আয়োজনে পালিত হচ্ছে মহান বিজয় দিবস

মহেশখালীতে শুক্রবার (১৬ ডিসেম্বর) বর্ণাঢ্য আয়োজনে উদযাপিত হচ্ছে মহান বিস্তারিত

টেকনাফে রোহিঙ্গা ও স্থানীয়দের চিকিৎসা ক্যাম্প উদ্বোধন

কক্সবাজারের টেকনাফে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গা জনগোষ্টী ও বিস্তারিত

চকরিয়ায় হাসিনা আহমেদের গাড়িতে হামলা

কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনে বিএনপি মনোনীত প্রার্থী হাসিনা আহামেদের বিস্তারিত

সর্বশেষ

সিইসির কাছে হেলিকপ্টার চাইলেন কক্সবাজারের ডিসি

কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন প্রধান নির্বাচন কমিশনারের নিকট বিস্তারিত

'উন্নয়নের রোল মডেল হবে পার্বত্য অঞ্চল'

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আওয়ামী লীগ সরকার বিস্তারিত

এবার পোস্টার পুড়িয়ে ফেলার অভিযোগ বিএনপির

চট্টগ্রাম জেলার ১৬টি নির্বাচনী এলাকায় বিএনপি প্রার্থীদের লাগানো পোস্টার বিস্তারিত

নির্বাচন কোনো খেলা নয়, এক প্রকারের যুদ্ধ: সিইসি

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা বলেছেন, ‍‍‍“একাদশ বিস্তারিত

সর্বস্বত্ত্ব সংরক্ষিত, এই ওয়েব সাইটের যেকোন লিখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ন বেআইনি

close